বগুড়া ও পাবনায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

সোনালী ডেস্ক: বগুড়ার শেরপুরে পৃথক ২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২জন ও পাবনার ঈশ্বরদীতে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।
বগুড়া প্রতিনিধি জানান, বগুড়ার শেরপুরে পৃথক ২টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২ জন নিহত হবার খবর পাওয়া গেছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার বগুড়া-ঢাকা মহাসড়কে ছোনকা এলাকায় দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। নিহতরা হলেন, মাইক্রোবাস চালক কক্সবাজারের রমিজ আহম্মেদের ছেলে মজিবুর রহমান (৩৩) এবং শেরপুরের ছোনকা দক্ষিণপাড়ার মৃত আরজ আলী ছেলে আজগর আলী (৫৬)।
জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল আনুমানিক সোয়া ৬ টার দিকে মেরপুরের জাতীয় মহাসড়কে ছোনকা বাজার এলাকায় ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের সঙ্গে বিপরীত মুখি ট্রাকের সংঘর্ষ হয়। এতে মাইক্রোবাসের চালক গুরুতর আহত হন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে বগুড়া মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
অপরদিকে এই দুর্ঘটনার কিছুক্ষণ পরপরই একই এলাকায় একটি বাসকে সাইড দিতে গিয়ে ঢাকাগামী একটি বাঁশবোঝাই ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের পাশে উল্টে যায়। এ সময় বাঁশের নিচে চাপা পড়েন পথচারী আজগর আলী (৫৬) নামের এক ব্যাক্তি। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় নিহতের লাশ উদ্ধার করেন।
পাবনা প্রতিনিধি জানান, পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলিতে আলু বোঝাই ট্রাক উল্টে এক বৃদ্ধ পথচারী নিহত হয়েছেন। নিহত সোহবার মোল্লা (৬৫) নাটোরের বড়াাইগ্রাম উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়ন রাজাপুর পূর্ণকলস এলাকার মৃত আহম্মেদ আলীর ছেলে। পাকশী হাইওয়ে পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলা থেকে আলু নিয়ে একটি ট্রাক (যশোর মেট্রো-ট-১১-৫০৮৩) কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিল। পথে মধ্যে ট্রাকটি ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি রেলগেটের কাছে পৌছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যায়। এতে ওই ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই সোহবার মোল্লার মৃত্যু হয়।

শর্টলিংকঃ