বগুড়ায় স্বামীর সহযোগিতায় স্ত্রী ধর্ষিত, পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় দিনে দুপুরে ভাড়া বাড়িতে স্বামীর সহযোগিতায় বন্ধু কর্তৃক স্ত্রীকে (২৪) ধর্ষণের পর পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চলোনো হয়েছে। তাকে বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল শনিবার দুপুরে শহরের শাহজাহানপুর উপজেলার চকলোকমান এলাকায়। ওই গৃহবধূ এলাকার এক বাস সুপারভাইজারের স্ত্রী।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দাম্পত্য-বিবাদের জের ধরে স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করে তার স্ত্রী। এরপর থেকে ওই গৃহবধূ শহরের চক লোকমান এলাকার একটি ভাড়া বাড়িতে ৭ বছরের একমাত্র মেয়েকে নিয়ে সাবলেট হিসেবে বসবাস করছিল।
এদিকে আদালতে মামলাটি বিচারাধীন থাকাবস্থায় শনিবার বেলা আনুমানিক ১টার দিকে তার স্বামী এক বন্ধুকে সাথে নিয়ে ওই বাড়িতে যায়। এ সময় বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে স্বামীর সহযোগিতায় তার বন্ধু গৃহবধূর চুল কেটে দেয় এবং ধর্ষণ করে। পরে তারা গৃহবধূর শরীরে দাহ্য কোন পদার্থ ঢেলে দিয়ে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চালায় এবং পালিয়ে যায় ।
পরে তার চিৎকারে স্থানীয়রা এসে তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহিদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এদিকে ঘটনার পর খবর পেয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতনরা ঘটনাস্থল ও হাসপাতালে ধর্ষিতাকে দেখতে যায়।
শাহজাহানপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আম্বার হোসেন এর কাছে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান , ডাক্তার কর্তৃক পরীক্ষা নিরীক্ষার পর ধর্ষণ এবং শারীরিক নির্যাতনের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।

শর্টলিংকঃ