ফজলির বাজার মন্দা, হতাশ আম চাষিরা

  • 78
    Shares

কামাল হোসেন, শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ):

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের আম বাজারগুলিতে ঐতিহ্যবাহী ফজলি আমের ভোক্তা না থাকায় দামে ধস নেমেছে। অপরদিকে নতুন জাতের আম আম্রপালির চাহিদা তুঙ্গে। আম্রপালি আমের মিষ্টতা ও অন্যান্য গুণাবলি থাকায় এর চাহিদা দিন দিন বাড়ছে।

দেশের সর্ব বৃহৎ কানসাট আম বাজার ঘুরে দেখা গেছে, পাইকারি ক্রেতা আসলেও দাম অত্যন্ত কম। আম বিক্রি করতে আসা কানসাট ইউনিয়নের শিবনারায়নপুর গ্রামের মাইনুল ইসলাম ৪৫ ক্যারেট আম ঠিকায় ২০ হাজার টাকায় উঠেছে। মন প্রতি প্রায় ১০০০ টাকা । কিন্তু সেই দামে বিক্রি করলে মাইনুলের প্রায় ১০০ টাকা মন প্রতি লোকসান হবে। তাই আম নিয়ে দাঁড়িয়েই ছিলেন।

বালুচর গ্রামের বাবু জানান, দূর থেকে সাইকেলে ৪ মন আম আনতে প্রায় ৯০০ টাকা খরচ হয়। বাজারে ফজলি আমের দর নিম্নে ১ হাজার টাকা ও উর্ধ্বে দেড় হাজার টাকা। সবমিলিয়ে এক সাইকেল আমে অর্থাৎ ৪ মন আমে প্রায় ২ হাজার লোকসান হচ্ছে।

একই কথা বললেন রাধানগর গ্রামের মোজাহার আজগুবির জেন্টুসহ প্রায় ৫০ জন আম বিক্রেতা। তারা জানান, এখানে ওজনে ১মনে প্রায় ৪৮/৫০ কেজি আম দিতে হচ্ছে। যদিও নিয়ম অনুযায়ী ৪৬ কেজি দেয়ার কথা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ কৃষি অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ নজরুল ইসলাম জানান, আম্রপালি আমের গুণগত মান এবং মিষ্টতার কারণে এর ভোক্তা প্রচুর। বাগান থেকেই আম বিক্রি হয় যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন, একটি ফজলি আম প্রায় দেড় কেজি পর্যন্ত ওজন হয়ে থাকে এবং ফলন অতি উচ্চমাত্রায় তাই ফজলি আমের দাম কমলেও কৃষকের ক্ষতি হবার সম্ভাবনা নাই। তিনি বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় মোট ৩৩ হাজার ৩৫ হেক্টর জমিতে আমের চাষ হয় যেখানে প্রায় ২৬ লাখ গাছ রয়েছে তার ভেতর শতকরা দশভাগ ফজলি আমের গাছ রয়েছে।

ঢাকা থেকে আগত আম আড়তদার আহসান আলি জানান, বুক ভরা আশা নিয়ে কানসাট বাজারে প্রতিবছরের ন্যায় এবার আমের আড়ত দিয়েছি। কিন্তু ফজলি আমের বাজার চাহিদা কমে গেছে। আর এই অঞ্চলে ফজলি আমের আবাদ বেশি এখানে আম্রপালি চাষ হয় না বললেই চলে। তাছাড়া প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে মানসম্মত আম ও খুব কম।

আম বিক্রেতা আনারুল ইসলাম বলেন, আমি ৪ মণ আম্রপালি নিয়ে এসেছি চাহিদা এত বেশি হওয়ায় পাইকারদের সরবরাহ করতে পারছি না। আমি এখন আম ৩৫০০ টাকা মণ দরে বিক্রি করেছি।

আম ক্রেতা তরিকুল ইসলাম জানান, ফজলি আমের দাম কম হওয়ায় আমি আম কিনতে এসেছি।

সোনালী/কেএইচ/আরআর

শর্টলিংকঃ