প্রধানমন্ত্রীর হাত শক্তিশালী করতে চাই: ডিপজল

  • 1
    Share

অনলাইন ডেস্ক: কিছুদিন আগে মারা গেছেন ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আসলামুল হক। তার মৃত্যুতে এই আসনে উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হতে চান জনপ্রিয় অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল।

সংসদ সদস্য আসলামুল হক ডিপজলের ছোটবেলার বন্ধু। তার অসমাপ্ত কাজগুলো করার জন‌্য এই শূন্য আসনে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন তিনি। ডিপজল বলেন, দল থেকে মনোনয়ন দিলে আমি জিতে আসতে পারব, এ আত্মবিশ্বাস আমার আছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশকে যেভাবে বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন, বাংলাদেশকে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করেছেন, আমিও এই উন্নয়নের অংশীদার হয়ে তা এগিয়ে নিতে চাই। প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের গতিকে বেগবান করতে চাই। তার হাতকে শক্তিশালী করতে চা

এলাকার উন্নয়নে কাজ করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ডিপজল বলেন, আমার জন্ম এই এলাকায়। এ এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখের সাথে সবসময়ই জড়িয়ে আছি। চেষ্টা করেছি মানুষের পাশে দাঁড়াতে। আমার এলাকার মানুষের সমস্যা সম্পর্কে আমার চেয়ে বেশি কেউ জানে না। এলাকার মানুষ আমার আপনজন। আমি তাদেরই একজন। তারা আমাকে ভালো করে জানে, চিনে। এলাকার সন্তান হিসেবে আমি সরাজীবন কিছু না কিছু করার চেষ্টা করেছি। আমার জীবনে চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। আল্লাহ আমাকে যথেষ্ট দিয়েছেন। আমি মানুষের সেবা করতে চাই। এলাকার মানুষের সুখ-দুঃখের সাথে জড়িয়ে তাদের সমস্যা সমাধান করতে চাই। এলাকার মানুষ যাতে শান্তি ও সমৃদ্ধির মধ্যে থাকতে পারে, এ ব্যাপারে নিরলস কাজ করতে চাই।

ডিপজল বরাবরই সাধারণ মানুষের বিপদে-আপদে পাশে দাঁড়িয়েছেন। তার কাছ থেকে খালি হাতে কেউ ফিরে যায়নি। তিনি বিভিন্ন সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজ থেকে শুরু করে প্রাকৃতিক দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। গত বছর করোনায় তিনি তার এলাকার হাজার হাজার অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। এই রমজানেও তিনি অব্যাহতভাবে অসহায় মানুষকে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। এসব সহায়তা তিনি গোপনেই করে থাকেন।

এর আগেও এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছিলেন ডিপজল। তখন আসলামুল হক নৌকার টিকিট পেয়েছিলেন। ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। চলচ্চিত্রের পর্দায় এ অভিনেতাকে নেতিবাচক ও ইতিবাচক দুই চরিত্রেই দেখা গেছে। তবে খল অভিনেতা হিসেবেই অধিক পরিচিত তিনি। সিনেমার মতো ব্যক্তি জীবনেও অভিজাত ডিপজল। ১৯৯৪ সালে ঢাকার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

সোনালী সংবাদ/এসএসকে

শর্টলিংকঃ