প্রতারণার মামলায় সিরাজগঞ্জের এমপির শ্বশুর গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক: প্রতারণার মাধ্যমে মন্ডল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সাবেক এমপি বেয়াই আব্দুল মজিদ মন্ডলের প্রায় ১২ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের এমপি আব্দুল মমিন মন্ডলের শ্বশুর বিশিষ্ট ব্যবসায়ী হাজী জাহাঙ্গীর আলমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার দুপুরে শহরের এস এস রোড এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হাজী জাহাঙ্গীর আলম শহরের মোক্তারপাড়ার মৃত মনছুর রহমানের ছেলে। তিনি সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য আব্দুল মমিন মন্ডলের শ্বশুর ও একই আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল মজিদ মন্ডলের বেয়াই।

সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) গোলাম মোস্তফা জানান, মঙ্গলবার ভোরে মন্ডল গ্রুপের প্রতিষ্ঠান মন্ডল অটো ব্রিক্স লি. এর প্রতিনিধি আওলাদ হোসেন বাদী হয়ে ১২ কোটি ২ লাখ টাকারও বেশি অর্থ প্রতারনার অভিযোগ এনে হাজী জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। দুপুরের দিকে শহরের এস এস রোড এলাকা থেকে আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার বাদী আওলাদ হোসেন বলেন, সাবেক সংসদ সদস্য ও মন্ডল গ্রুপের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ মন্ডলের ছেলে বর্তমান সংসদ সদস্য এবং মন্ডল গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মমিন মন্ডলের শ্বশুর হাজী জাহাঙ্গীর আলম আত্মীয়তার সুবাদে মন্ডল অটোব্রিক্স লিমিটেড স্থাপনের লক্ষ্যে ৩শ/৪শ বিঘা জমি কিনে দিতে চান। তখন জাহাঙ্গীর আলম নির্ভেজাল সম্পত্তি কিনে দেয়ার কথা বলে মজিদ মন্ডলের কাছ থেকে বগুড়া জেলার শেরপুরে জমি কেনার কথা বলে জমি কেনার জন্য ২০১২ সাল থেকে ২০১৭ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত নগদে ও চেকের মাধ্যমে ১২ কোটি ২ লাখ, ২২ হাজার ৯৪০ টাকা নেন।

জাহাঙ্গীর আলম কোন জমি না কিনে ওই টাকা আত্মসাত করেছেন। আত্মসাত করা টাকা ফেরত দেয়ার বিষয়ে কয়েক দফা শালীস বৈঠকও হয়েছে। তিনি টাকা আর ফেরত দেননি। এ অবস্থায় গত ১৫ সেপ্টেম্বর আব্দুল মজিদ মন্ডল জাহাঙ্গীর আলমকে টাকা ফেরতের বিষয়ে জানতে চাইলে জাহাঙ্গীর আলম অস্বীকার করেন। এ কারণে বাধ্য হয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ