পবায় লাশ দাফনকে কেন্দ্র সংঘর্ষ, আহত ৫

  • 19
    Shares


স্টাফ রিপোর্টার: পবার দামকুড়া ইউনিয়নের দেলুয়াবাড়ি গ্রামে এক নারীর লাশ দাফনকে কেন্দ্র করে মারামারিতে ৫ জন আহত হয়েছে। এ নিয়ে আরএমপি কাশিয়াডাঙ্গা থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।

মামলা থেকে জানা যায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মসজিদ কমিটির সভাপতিসহ ৫ জন আহত হয়েছেন। দেলুয়াবাড়ি গ্রামের মফিজ উদ্দিনের স্ত্রী সামসুন নাহারের মৃত্যুতে তার নামাজে জানাজা শুক্রবার বিকাল সোয়া ৩টার দিকে পরিবারের পক্ষ থেকে নির্ধারণ করা হয়।

সেইসাথে স্থানীয় গোরস্থান দেলুয়াবাড়ি কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। জানাজার পূর্বে মফিজ উদ্দিনের আত্মীয়-স্বজন গোরস্থানে উপস্থিত হয়ে বলেন, জানাজার সময় নির্ধারণ কার হুকুমে করেছেন বলে মফিজ উদ্দিনের সাথে বাকবিতণ্ডা লেগে যায়।

সে সময় গ্রামবাসীর পক্ষ থেকে মঈনুদ্দিন নামে একজন দ্বন্দ্ব না করে মাটি হওয়ার পরে বসে আলোচনা সাপেক্ষে সমাধান করার কথা বলেন।

মঈনুদ্দিনের এই কথার জেরে সেখানে উপস্থিত খাইরুল ইসলাম পূর্ব শত্রুতার কারণে তাঁর ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারপিট শুরু করে এবং অন্যান্যদের মারতে হুকুম দেন। এতে ৫ জন গুরুতর আহত হন। আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত ব্যক্তিরা হলেন দেলুয়াবাড়ী গ্রামের মইনুদ্দিন, সরোয়ার, নওশাদ, আলাউদ্দিন, ও কামরুল ইসলাম।

এ বিষয়ে কাশিয়াডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ এস.এম মাসুদ পারভেজ বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। খাইরুল ইসলাম নামে একজন আসামীকে এই মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ