পদ্মায় নৌকাডুবি: নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীসহ দুইজনের সন্ধান মেলেনি

নিখোঁজদের সন্ধানে অভিযান অব্যাহত। ইনসেটে নিখোঁজ ছাত্রী

স্টাফ রিপোর্টার:

রাজশাহী নগরীর উপকণ্ঠ নবগঙ্গা এলাকায় পদ্মা নদীতে ইঞ্জিনচালিত নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সাদিয়া ইসলাম সূচনা ও তার ফুফাতো ভাই রিমনের সন্ধান মেলেনি।

শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে এ প্রতিবেদন লেখার সময়ও পদ্মার ওই এলাকায় উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছিল ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানান, ‘নিখোঁজ দুই শিক্ষার্থীকে উদ্ধারে অভিযান এখনও অব্যাহত রয়েছে। রাতে রাজশাহী জেলা প্রশাসক আবদুল জলিলও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি সার্বিক খোঁজ-খবর রাখছেন।’

এদিকে, নিখোঁজ সাদিয়া ইসলাম সূচনা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নয়। তিনি আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ (এআইইউবি) এর বিবিএ তৃতীয় সেমিস্টারের ছাত্রী বলে নিশ্চিত করেছে তার স্বজনরা।

সূচনা ঢাকার ধানমন্ডি এলাকায় বসবাস করেন। তিনি পবা উপজেলার খোলাবোনা এলাকায় চাচা জালাল উদ্দিনের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। নিখোঁজ আরেকজনের নাম রিমন (১৪)। তার বাড়ি নওগাঁয়। সম্পর্কে তারা মামাতো-ফুফাতো ভাইবোন।

বাবার সঙ্গে সুচনা। রাজশাহীর পদ্মায় নৌকাডুবিতে নিখোঁজ রয়েছেন সুচনা।
বাবার সঙ্গে সূচনা

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হারুপুর এলাকায় পদ্মা নদীতে মাঝি এবং ১২ জন যাত্রী নিয়ে ইঞ্জিনচালিত নৌকা ডুবে যায়। পরে অন্য নৌকা গিয়ে মাঝিসহ ১১ জনকে উদ্ধার করে। তবে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী সূচনা ও তার ফুফাতো ভাই রিমন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

এর আগে ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপ-সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানিয়েছিলেন, উদ্ধার হওয়া ১১ জনের মধ্যে দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাদেরকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোনালী সংবাদ/এইচ.এ

শর্টলিংকঃ