পছন্দের ছেলের সাথে বিয়ে না দেয়ায় কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

দুর্গাপুর প্রতিনিধি: নিজের পছন্দের ছেলের সাথে বিয়ে না দিয়ে অন্য ছেলের সাথে বিয়ে দেয়ায় বাবা-মায়ের উপরে অভিমান করে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক কলেজছাত্রী। ওই কলেজ ছাত্রীর নাম প্রিয়া আক্তার (১৭)। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার বাজুখলসী গ্রামে। সে ওই গ্রামের আনা মিয়ার মেয়ে বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, গত ৫/৬ মাস আগে প্রতিবেশী এক ছেলের সাথে বিয়ে হয় প্রিয়া আক্তারের। কিন্তু এই বিয়েতে মত ছিলো না প্রিয়ার। তার প্রেম সম্পর্ক চলছিলো অন্য এক ছেলের সাথে। বিষয়টি বুঝতে পেরে প্রিয়ার বাবা-মা তড়িঘড়ি করে একধরনের জোর করেই মেয়েকে বিয়ে দিয়ে দেয়।

কিন্তু জোর করে বিয়ে দিয়ে দিলেও স্বামীকে পছন্দ না হওয়ায় বেশিরভাগ সময় বাবার বাড়িতেই থাকতো প্রিয়া। এই সুযোগে প্রিয়ার স্বামীও স্ত্রীর সাথে শ্বশুর বাড়িতেই থাকতো। এ নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে প্রায় ঝগড়াঝাটি লেগেই থাকতো প্রিয়ার।

শুক্রবার দুপুরেও ঝগড়া লাগে মায়ের সাথে। সন্ধ্যায় বাবার বাড়ির দোতালায় নিজ শয়ন কক্ষে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে প্রিয়া।

বাড়ির লোকজন প্রিয়ার কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে তার শয়নকক্ষের জানালায় উঁকি দিয়ে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়া হয়।

দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাশমত আলী জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। পরিবারের লোকজনের মতামত নিয়ে মরদেহ দাফনের অনুমতি দেয়া হবে।

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ