নাতির বিরুদ্ধে দাদীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ

অনলাইন ডেস্ক: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে বিধবা দাদীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্বয়ং নাতির বিরুদ্ধে। বর্তমানে ওই নির্যাতিতা নারী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। গত সোমবার মধ্যরাতে নাতির বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত আবুল হোসেন (২২) নবীনগর উপজেলার নাটঘর ইউনিয়নের কুঁড়িঘর গ্রামের মুজলিশ মিয়ার ছেলে।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই নারী মঙ্গলবার রাতে জানান, সোমবার মধ্যরাতে ঘরের বাইরে টয়লেট থেকে নিজ ঘরে যাওয়ার সময় স্বামীর ভাতিজা ঘরের ছেলে তার নাতি আবুল হোসেন তাকে মুখে কাপড় চেপে ধরে পাশের অন্ধকার জায়গায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করেন।

তিনি আরো জানান, এ সময় তার আত্মচিৎকারে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করেন। পরে বিষয়টি নাটঘর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কাসেমকে অবহিত করা হয়।

নাটঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাসেম জানান, অভিযোগকারী বিধবা নারীকে তার আপন ভাতিজা ঘরের নাতি ধর্ষণের চেষ্টা করেন বলে ওই নারীর কাছ থেকে জানতে পারি। পরে রাতে ওই নারীকে উদ্ধার করি। তবে ওই নারীর তার সৎ ছেলে রহিজ মিয়ার সাথে জায়গা সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিলো বলে চেয়ারম্যান জানান।

গতকাল রাতে নবীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আমিনুর রশিদ জানান, ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে, এমন কোনো অভিযোগ পায়নি। তবে আমরা জানতে পেরেছি জায়গা সম্পত্তি জেরে রাতে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনায় এখনো লিখিত কোনো অভিযোগ পায়নি।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ