নন্দীগ্রামে ২৬ টি হাট সাময়িক বন্ধ ঘোষণা

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি: করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে বগুড়ার নন্দীগ্রামে ২৬ টি হাট সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। এদিকে সচেতনতা বাড়াতে উপজেলায় প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙিয়ে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।
জানা গেছে, বিদেশ ফেরত নন্দীগ্রাম উপজেলায় ৬৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। তাদের মধ্যে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষ হওয়ায় ২৮ জনকে স্বাভাবিকভাবে চলাফেরার অনুমতি দেয়া হয়েছে। এইসব হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙানো হয়েছে। লাল পতাকা লাগানো বাড়িতে কেউ যেন যাতায়াত না করে এবং প্রবাসীরাও যেন বাড়ি থেকে বের না হয়, সে জন্য এই ব্যবস’া নেয়া হয়েছে। এদিকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে উপজেলার ২৩ টি ও পৌরসভার ৩ টি হাট-বাজার বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। জনসমাগম ও দলবদ্ধভাবে চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে সামাজিক দূর্বত্ব বজায় রাখতে বলা হচ্ছে। করোনাভাইরাস সর্স্পকে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে লিফলেট বিতরণসহ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে নন্দীগ্রাম পৌর শহরে জীবাণুনাশক ওষুধ ছিটানো হয়। সবাইকে নিজ নিজ ঘরে অবস’ান করার জন্য বারবার তাগিত দেওয়া হচ্ছে। একই সাথে গণপরিবহনগুলোও বন্ধ রয়েছে। ওষুধের দোকান, মুদির দোকান ও কাঁচা বাজার ছাড়া অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। এ ছাড়াও উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন এবং একটি পৌরসভায় ১৩ টি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন ১১৭ শয্যা বিশিষ্ট বেড প্রস’ত করা হয়েছে। এছাড়াও করোনাভাইরাস বিষয়ে যেকোন তথ্য ও সেবার জন্য উপজেলা কন্ট্রোল র্বম খোলা হয়েছে।

শর্টলিংকঃ