নন্দীগ্রামে ঘুরে বেড়াচ্ছেন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীরা

এফএনএস: স্বাস’্য বিভাগের নির্দেশনা মানছেন না বগুড়ার নন্দীগ্রামে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা প্রবাসীরা। প্রকাশ্যে হাট-বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে স’ানীয়দের মধ্যে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিদেশ ফেরত নন্দীগ্রাম উপজেলায় ৮ জনকে নিজ বাড়িতে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ রাখা হয়েছে। তাদের করোনাভাইরাসের লৰণ না থাকলেও সতর্কতা হিসেবে ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ থাকতে বলা হয়। প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াতে নিষেধ করা হলেও অনেকেই কোনো নির্দেশনা মানছেন না। অবাধে হাট-বাজার, চায়ের দোকানসহ বিভিন্ন স’ানে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বারবার সর্তক করা হলেও তারা ভ্র্বৰেপ করছেন না। তাদের মধ্যে কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে ভয়াবহ বিপদ হতে পারে। এতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে স’ানীয়দের মধ্যে। জানতে চাইলে মালয়েশিয়া থেকে আসা এক প্রবাসী বলেন, ‘আমি সম্পন্ন সুস’্য’। সকালে নিজের প্রয়োজনে বাজারে গিয়াছিলাম। কুয়েত থেকে আসা আরেক প্রবাসীকে কুন্দারহাটে বাজার করতে দেখা গেছে। জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাজার করতে তিনি হাটে এসেছিলেন। তবে আর বাইরে বের হবেন না বলেও জানান তিনি। ভাটরা ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) জাহাঙ্গীর আলম জুয়েল বলেন, তার ওয়ার্ডে মালয়েশিয়া থেকে আসা এক প্রবাসী জনসমাগমস’লে প্রকাশ্যে ঘুরচ্ছেন। তিনি চা’ষ্টলেও আড্ডা দিচ্ছেন।
এ বিষয়ে নন্দীগ্রাম উপজেলা স্বাস’্য ও পরিবার করিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তোফাজ্জল হোসেন ম-ল বলেন, সতর্কতা হিসেবে ৮ জনকে হোম কায়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তাদেরকে বাড়ির বাইরে না যেতে বলা হয়েছে। কেউ প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালে, তার বির্বদ্ধে প্রশাসনিকভাবে ব্যবস’া নেয়া হবে।

শর্টলিংকঃ