দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে পারলেই মুজিববর্ষে দেয়া হবে সর্বোচ্চ উপহার

স্টাফ রিপোর্টার: দুর্নীতি দমন কমিশনের সচিব দিলোয়ার বখত বলেছেন, আমরা দুর্নীতির বাইরে কেউই নই। তাই আমরা যদি দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে পারি তা হলেই এই মুজিববর্ষে দেয়া হবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি সর্বোচ্চ উপহার। তাই দেশপ্রেমে আবদ্ধ হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হবে।
গতকাল সোমবার বিকালে রাজশাহী জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে জেলা প্রশাসন আয়োজিত সকল অফিস প্রধানদের উদ্দেশে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, দুর্নীতি প্রতিরোধের মাধ্যমে দুর্নীতি দূর করতে হবে। তিনি বলেন, প্রতি জেলা ও উপজেলায় দুর্নীতি বিরোধী কমিটি গঠন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে দুর্নীতি প্রতিরোধে অনুসন্ধান চালাতে হবে।
রাজশাহী জেলা প্রশাসক হামিদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত সুধীজনদের মধ্য থেকে দৈনিক সোনালী সংবাদের সম্পাদক মো. লিয়াকত আলী বলেন, আমাদের দেশের দুর্নীতির প্রধান খাত হচ্ছে ব্যাংক খাত। এখানে কোটি কোটি টাকা আত্মাসাত করে অনেকেই ফুলে ফেঁপে উঠেছে। অনেকে হাজার হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করে দেশের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করছে। তাদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানান তিনি।
মুক্তিযুদ্ধকালীন কমান্ডার সফিকুর রহমান রাজা বলেন, আজ দেশে অর্থনৈতিক বৈষম্য চরম আকার ধারণ করেছে। আমরা বঙ্গবন্ধুর ডাকে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলাম। বঙ্গবন্ধুও চেয়েছিলেন বৈষম্যহীন বাংলাদেশ। যেটা আমাদের সংবিধানে রয়েছে। দুর্নীতির কারণে আমরা কিছুই করতে পারছি না।
সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ডা. আব্দুল মান্নান বলেন, বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন আমার কৃষক দুর্নীতি করে না, আমার শ্রমিক দুর্নীতি করে না, আমার খেটে খাওয়া গরিব মানুষও দুর্নীতি করে না। দুর্নীতি করেন সার্ট-প্যান্ট পরা মানুষ। যারা টেবিলে বসে দুর্নীতি করেন। তাই প্রশাসন
থেকেই আমাদের দুর্নীতি প্রতিরোধ করতে হবে।
বিশিষ্ট সাহিত্যিক, গবেষক ও শাহমখদুম কলেজের প্রাক্তন অধ্যক্ষ ড. তসিকুল ইসলাম রাজা রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনর অতীতের দুর্নীতি ও বর্তমান অগ্রযাত্রার কথা তুলে ধরেন।
সভায় তাদের দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে বক্তব্য রখেন, দুর্নীতি দমন কমিশনের রাজশাহী জেলা পরিচালক, রাজশাহী পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ, ডিসি বোয়ালিয়া সাজিদ হোসেন বক্তব্য রাখেন। তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, আমরা যদি দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করি তা হলে অনেকটাই দুর্নীতি দূর হয়ে যাবে।
সভায় রাজশাহী জেলার সকল অফিস প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা ও সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শর্টলিংকঃ