তিন রাখালকে নিয়ে গেল বিএসএফ, বৈঠকে বিনিময়ের মাধ্যমে ছাড়ল

চারঘাট প্রতিনিধি: রাজশাহী জেলার চারঘাট সীমান্ত থেকে তিন বাংলাদেশী রাখালকে ধরে নিয়ে যাওয়ার পর ছেড়ে দিয়েছে বিএসএফ। বৃহস্পতিবার ভারতের অভ্যন্তরে হায়দারের বাগান (পদ্মার চরে) নামক স্থানে থেকে তাদের ধরে নিয়ে যায় ভারতীয় বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ)।

এছাড়াও ওই একই স্থান থেকে ভারতীয় দুই নাগরিককে ধরে নিয়ে আসে স্থানীয় রাখালরা।

আটকৃতরা হলেন, চারঘাট চকমোক্তারপুর গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে রুবেল (৪০), একই গ্রামের মৃত হারেজের ছেলে মিঠুন (২৮) ও সরকারপাড়া গ্রামের সুমন কুমার (২৫)।

জানা গেছে, বাংলাদেশী তিনজন রাখাল ভারতের অভ্যন্তরে ঘাস কাটার জন্য প্রবেশ করলে ১১৭/কাগমারী বিএসএফ ক্যাম্পের টহলদল স্পিট বোট যোগে এসে তাদের আটক করে বিএসএফ ক্যাম্পে নিয়ে যায়।

এদিকে বিএসএফ টহলদল আটককৃত স্থান ত্যাগ করার পর বাংলাদেশী কয়েকজন রাখাল ভারতীয় দুইজন নাগরিককে বাংলাদেশী সীমানায় পয়েে ধরে নিয়ে আসে। খবর পেয়ে ইউসুফপুর বিজিবি টহলদল ঘটনাস্থলে গিয়ে ভারতের নাগরিকদের নিজ হেফাজতে নেয়।

আটককৃত ভারতীয় কৃষকগন হলেন মুর্শিদাবাদ জেলার জলঙ্গী থানার লালপুর গ্রামের রসুল শেখের ছেলে শহিদুল শেখ এবং একই গ্রামের মোয়াজ্জেমের ছেলে নয়ন শেখ।

সীমান্তে কোন রকম বশিৃংখলা এড়াতে পরবিশে শান্ত রাখতে ইউসুফপুর বিওপির পক্ষ থেকে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়। শুক্রবার সকালে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে স্ব স্ব দেশের আটককৃতদের নাগরিকত্ব প্রমাণস্বরুপ হস্তান্তর করা হয়।

এপ্রসঙ্গে ইউসুফপুর বিওপি কোম্পানী কমান্ডার আবু তালেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন সীমান্ত এলাকায় পরবিশে শান্ত রাখতে উভয় দশেরে সীমান্ত রক্ষীদরে সমন্বয়ে আটককৃতদরে হস্তান্তর করা হয়ছে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ