তিন বিষয়ে অকৃতকার্যদের প্রমোশন নয়

অনলাইন ডেস্ক: সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেছেন, দুয়ের অধিক বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের প্রমোশন দিতে নতুন করে ভাবার সুযোগ নেই।

সোমবার দুপুরে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে তিন বিষয়ে অকৃতকার্যদের পরবর্তী বর্ষে ‘প্রমোশন’ দেয়ার দাবিতে আন্দোলন করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত রাজধানীর সাত সরকারি কলেজের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনের মুখে গত মাসের শেষে সাত কলেজের প্রশাসন স্নাতক (সম্মান) প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বে সর্বোচ্চ দুই বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের প্রমোশনের সুযোগ দেয়। কিন্তু এখন তিন বিষয় পর্যন্ত অকৃতকার্য শিক্ষার্থীরা প্রমোশন চাইছেন।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, নতুন নিয়মে পরীক্ষার খাতার যথাযথ মূল্যায়ন না হওয়ায় তারা গণহারে অকৃতকার্য হচ্ছেন।

শিক্ষার্থীদের ভাষ্য, সাত কলেজের ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের ফলাফল করোনার কারণে পরীক্ষার ১১ মাস পরে প্রকাশিত হয়েছে। অনেকের ফল খারাপ হওয়ায় এখন তারা পরবর্তী বর্ষে প্রমোশন পাচ্ছেন না। এ কারণে তাদের একটি বড় ধরনের সেশনজটে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। তাই তিন বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে তারা বিশেষ বিবেচনায় প্রমোশন চান।

দেরি করে ফল প্রকাশের অভিযোগের বিষয়ে মাকসুদ কামাল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে শিগগিরই পদক্ষেপ নেয়া হবে।

সাত কলেজের প্রধান সমন্বয়ক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল বললেন, ‘সাত কলেজের দুই বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের পরবর্তী বর্ষে প্রমোশনের সিদ্ধান্ত আমি প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব নেয়ার আগেই নেয়া হয়েছে। তিন বা ততোধিক বিষয়ে অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের এই সুযোগ দেয়া হয়নি। সাত কলেজের অধ্যক্ষ ও সাত কলেজের দায়িত্বে থাকা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনরা বিশ্লেষণ করেই ওই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সুতরাং এ বিষয়ে নতুন করে ভাবনার কোনো অবকাশ নেই। অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের পুনঃ ভর্তির সুযোগ রয়েছে।’

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ