টুইটারে যা লিখলেন বিল গেটস ও মেলিন্ডা

  • 2
    Shares

অনলাইন ডেস্ক: দাম্পত্য জীবনের অবসান ঘটানোর ঘোষণা দিয়েছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্বের অন্যতম ধনী ব্যক্তিত্ব বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটস। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

২৭ বছরের সংসারের একসঙ্গে পথচলার ইতি টেনে টুইটারে এক আবেগঘন বার্তা দিয়েছেন এই যুগল। বিচ্ছেদের ঘোষণায় তারা বলেছেন, আমরা এটা আর বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমাদের জীবনের পরের ধাপে দম্পতি হিসেবে আমরা একসঙ্গে থাকতে পারব।

বিল গেটস ও তার স্ত্রী মেলিন্ডা পৃথিবীর ধনাঢ্য পাঁচ দম্পতির একটি। বিল গেটসের সম্পত্তির পরিমাণ ১২৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

অনেকটা হঠাৎ করেই বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন দুজন। দুই সপ্তাহ আগেও মহামারি মোকাবিলায় লড়াইরত চিকিৎসাকর্মীদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন দুজন।

সোমবার টুইটারে পোস্ট করা যৌথ বার্তায় গেটস দম্পতি বলেন, ব্যাপক চিন্তাভাবনা করে আমরা বিয়ের সম্পর্কের সমাপ্তি ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এ ছাড়া টুইটবার্তায় বিল গেটস ও মেলিন্ডা বলেন, গত ২৭ বছরে আমরা অসাধারণ তিনটি সন্তান পেয়েছি। এমন একটা ফাউন্ডেশন গড়ে তুলেছি, যে ফাউন্ডেশন বিশ্বজুড়ে মানুষের স্বাস্থ্য ও সক্ষমতা নিয়ে কাজ করছে। আমরা যে বিশ্বাস থেকে ফাউন্ডেশনটি চালু করেছি, সেটা থাকবে। এই ফাউন্ডেশনের কাজ একসঙ্গে চালিয়ে যাব। কিন্তু আমরা এটা আর বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমাদের জীবনের পরের ধাপে দম্পতি হিসেবে আমরা একসঙ্গে থাকতে পারব।

দ্য গেটস ফাউন্ডেশন মূলত বিশ্বের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে কাজ করে। ফাউন্ডেশনটি করোনাভাইরাসের চিকিৎসা ও টিকা তৈরিতে সবচেয়ে বড় তহবিল সরবরাহকারী। ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে তিনি বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার খরচ করতে চান বলে জানান বিল গেটস।

গেটস দম্পতির তিন সন্তান- জেনিফার (২৫), রোরি (২১) ও ফোয়েব (১৮)।

ইনস্টাগ্রামে জেনিফার গেটস লিখেছেন,‘আমাদের পুরো পরিবারের জন্য একটা দুঃসময় ছিলো। জীবনের পরবর্তী ধাপে ব্যক্তিগত গোপনীয়তার বিষয়টি বোঝার জন্য সবাইকে অগ্রিম ধন্যবাদ দেন গেটস দম্পতির বড় মেয়ে জেনিফার।

এর আগে মেলিন্ডা বলেছিলেন, তাদের বিয়েটা বেশ কঠিন পর্যায়ে ঠেকেছে। বিল নিয়মিত দিনের ১৬ ঘণ্টা কাজ করেন। পরিবারের জন্য তার সময় বের করা দুঃসাধ্য হয়ে যায়।

২০১৯ সালে ২৫তম বিবাহবার্ষিকীতে সানডে টাইমসকে তিনি এ কথা বলেন। শেষ পর্যন্ত বিচ্ছেদের পথেই হাঁটলেন এই সেলিব্রেটি দম্পতি।

সাম্প্রতিক বছরগুলোর মাঝে পৃথিবীর শীর্ষ ধনী দম্পতির বিচ্ছেদের দ্বিতীয় ঘটনা এটি। ২০১৯ সালে বিশ্বখ্যাত ই-কমার্স অ্যামাজনের প্রধান নির্বাহী জেফ বেজস তার স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি স্কটের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটান। বিচ্ছেদের ফলে বেজসের স্ত্রী বিশ্বের চতুর্থ ধনী নারীতে পরিণত হন। ৩৮ বিলিয়ন ডলার পরিমাণ সম্পত্তি পান ম্যাকেঞ্জি।

সোনালী/জেআর

শর্টলিংকঃ