টিকটক স্টাররা কত আয় করেন, জানলে চমকে যাবেন!

  • 6
    Shares
ভারতের জনপ্রিয় টিকটক স্টাররা

অনলাইন ডেস্ক:

ভারত সরকার তাদের সার্বভৌমত্ব রক্ষা এবং দেশবাসীর তথ্য সুরক্ষিত রাখার স্বার্থে ৫৯টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে। নিষিদ্ধের তালিকায় রয়েছে জনিপ্রয় ভিডিও অ্যাপ টিকটিকও।

যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে এই অ্যাপ খুবই জনপ্রিয়। এমন অনেকে আছেন যাঁরা টিকটকে নিজেদের ভিডিয়ো পোস্ট করে প্রচুর অর্থ উপার্জন করেন। তেমনই বেশ কয়েক জন জনপ্রিয় টিকটক স্টারের কাহিনি রইল এই গ্যালারিতে।

মূলত শর্ট ডান্স, লিপ সিঙ্ক, কমেডি এবং ট্যালেন্ট ভিডিয়ো হিসেবেই ২০১৬-য় এই অ্যাপটি লঞ্চ করেছিল বেজিঙের টেকনোলজি সংস্থা বাইটডান্স।

২০১০ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া মোবাইল অ্যাপের মধ্যে সপ্তম স্থানে ছিল এটি। মোট ৩৯টি ভাষায় এই অ্যাপ রয়েছে।

তার মধ্যে ভারতে রয়েছে ১৪টি ভাষায়। ২০১৯-এ বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি টিকটক ডাউনলোড হয়েছে ভারতে—৩২কোটি ৩০ লক্ষ। যা বিশ্বের মোট টিকটক গ্রাহকদের ৪৪ শতাংশ।

আরও পড়ুন: ‘ফার্মহাউজে পূজাকে প্রতিদিন ধর্ষণ করত সালমান’

একটি সমীক্ষা বলছে, টিকটকে গড়ে এক জন গ্রাহক সময় কাটান ৪৫ মিনিট। সেখানে ভারতীয় গ্রাহকরা প্রতি দিন ৩৮ মিনিট ব্যবহার করেন এই অ্যাপ।

manjul
টিকটক স্টার মঞ্জুল খট্টর

ভারতে এই অ্যাপ এত জনপ্রিয় যে টিকটকে নিজেদের ট্যালেন্ট দেখিয়ে অনেকেই অর্থ উপার্জন করেন। তাঁদের মধ্যে এক জন হলেন মঞ্জুল খট্টর। টিকটকের বেশ পরিচিত এক জন স্টার।

হরিয়ানার গুরুগ্রামের ছেলে মঞ্জুল। বাণিজ্যবিভাগ নিয়ে পড়াশোনা করেছেন। হেয়ারস্টাইলের জন্য টিকটকে বেশ জনপ্রিয় মঞ্জুল। প্রায় ১৪ কোটি ফলোয়ার রয়েছে তাঁর। শুধু ভিডিয়ো পোস্ট করে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা আয় করেন মঞ্জুল।

আরও পড়ুন: এবার বাংলাদেশে ‘বড়লোকের বেটি’, কণার কণ্ঠে মডেলিংয়ে আঁখি

টিকটক যাঁরা ব্যবহার করেন তাঁরা নিশ্চয় গিমা আশির নাম শুনে থাকবেন। গিমা এক জন মডেল। ইনস্টাগ্রামেও তাঁর প্রচুর ফলোয়ার রয়েছেন। টিকটকে ‘বহত হার্ড’ গানে নিজের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন টিকটকে। সেই ভিডিয়োর ৫০ লক্ষ ভিউ হয়েছিল।

awez
টিকটক স্টার গিমা আশির

মেধাবী ছাত্রী গিমা থাকেন দিল্লিতে। টিকটকে এক কোটি ফলোয়ার রয়েছে তাঁর। টিকটকে ভিডিয়ো পোস্ট করে মাসে ৬ লক্ষ টাকা আয় করেন।

অবেজ দরবার টিকটক স্টারদের মধ্যে অন্যতম। তাঁর নিজের ইউটিউব চ্যানেল আছে। টিকটকে নিজের কমেডি ভিডিয়ো পোস্ট করে বেশ জনপ্রিয় হয়েছেন অবেজ।

awez
অবেজ দরবার

কোরিয়োগ্রাফার হিসেবেও পরিচিতি রয়েছে তাঁর। ইউটিউবে প্রায় ৩ লক্ষ ফলোয়ার। আর টিকটকে ফলোয়ারের সংখ্যা ২ কোটি। অবেজের মাসিক আয় ১৪ লক্ষ টাকা।

নিজের ট্যালেন্টের ভিডিয়ো পোস্ট করে লাখ টাকা আয় করার তালিকায় রয়েছেন অবনীত কউর। অবনীত এক জন টেলি অভিনেত্রী। টিকটকে খুবই জনপ্রিয়।

avneet
অবনীত কউর

বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ডান্স রিয়ালিটি শো-এর প্রতিযোগী ছিলেন অবনীত। তার মধ্যে রয়েছে ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স লিল মাস্টার, ডান্স কে সুপারস্টারস ইত্যাদি।

বেশ কয়েকটি টেলি সিরিয়ালও করেছেন। মর্দানি ছবিতেও অভিনয় করেছেন। টিকটকে তাঁর ৫০ লক্ষেরও বেশি ফলোয়ার। অবনীতের মাসিক আয় ১৬ লক্ষ টাকা।

zubair
জান্নাত জুবেইর

টিকটকের অন্যতম জনপ্রিয় স্টার হলেন জান্নাত জুবেইর। জন্নত এক জন অভিনেত্রীও। ২০১৯-এ ভারতে টিকটক ফলোয়ারের সংখ্যায় শীর্ষে ছিলেন জন্নত। তাঁর টিকটকের ফলোয়ার সংখ্যা ১ কোটি। তাঁর মাসিক আয় ২০ লক্ষের কাছাকাছি। -আনন্দাবাজার

সোনালী সংবাদ/এইচ.এ

শর্টলিংকঃ