জুয়া খেলা নিষিদ্ধে হাইকোর্টের রায় চেম্বারে বহাল

সোনালী ডেস্ক: টাকা বা অন্য কিছুর বিনিময়ে তাস, ডাইস, হাউজি খেলাসহ সব ধরনের জুয়া খেলা নিষিদ্ধ করে হাইকোর্টের দেয়া রায় আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালতেও বহাল রয়েছে। একই সঙ্গে আগামী ২৪ ফেব্রæয়ারি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে। গতকাল সোমবার আপিল বিভাগের বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর চেম্বার জজ আদালত এ দিন ধার্য করেন। আদালতে গতকাল সোমবার ঢাকা ক্লাবের পক্ষে হাইকোর্টে আবেদন করেন ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ। এর আগে গত ১০ ফেব্রæয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে ঢাকা ক্লাবসহ ১৩টি অভিজাত ক্লাব ও সারাদেশে টাকা বা অন্য কিছুর বিনিময়ে তাস, ডাইস, হাউজি খেলাসহ সব ধরনের জুয়া খেলা নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন। একই সঙ্গে ক্লাবসহ জনসমাগম স্থানে জুয়ার উপকরণ পাওয়া গেলে তা জব্দ করতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেয়া হয়। পাশাপাশি এ ধরনের খেলার অনুমতি দাতা, খেলার আয়োজক ও অংশগ্রহণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। ঢাকা ক্লাবসহ দেশের বিভিন্ন শহরের ১৩টি অভিজাত ক্লাবে জুয়া খেলা বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে করা রিট আবেদনে এ রায় দেয়া হয়। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার সামিউল হক ও অ্যাডভোকেট রোকন উদ্দিন মো. ফারুকের করা এক রিট আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি শেষে হাইকোর্ট ২০১৬ সালের ৪ ডিসেম্বর এক আদেশে টাকা বা অন্য কিছুর বিনিময়ে ১৩টি ক্লাবে তাস, ডাইস ও হাউজি খেলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেন। একই সঙ্গে টাকা বা অন্য কোনো বিনিময়ে জুয়া জাতীয় অবৈধ ইনডোর গেইম যেমন- তাস, ডাইস ও হাউজি খেলা ও আয়োজকদের বিরুদ্ধে রুল জারি করেন। পরে ক্লাবগুলোর আবেদনে আপিল বিভাগ ওই বছরের ১১ ডিসেম্বর হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেন। হাইকোর্টের জারি করা রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত এ স্থগিতাদেশ দেয়া হয়। এ অবস্থায় রুলের ওপর চ‚ড়ান্ত শুনানি সম্পন্ন হয় গত ২৩ জানুয়ারি। পরে ১০ ফেব্রæয়ারি হাইকোর্ট রায় ঘোষণা করেন।

শর্টলিংকঃ