ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক মামুনকে অব্যাহতি

অনলাইন ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর করা ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী হাসান আল মামুনকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়কের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ঢাবির ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের সাবেক ছাত্র মামুনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আসায় তাকে অব্যাহতি দিয়ে ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটিও করেছে সংগঠনটি।

বুধবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, গত ২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী ছাত্র অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনসহ চার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ধর্ষণে সহযোগিতা করার অভিযোগ এনে লালবাগ ও কোতোয়ালি থানায় দুটি অভিযোগ দায়ের করে।

‘প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ছাত্র অধিকার পরিষদ ছাত্র তথা গণমানুষের ও ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ে সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছে। তাই সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা নিরুপনে এবং সুষ্ঠু ন্যায়বিচারের স্বার্থে তিনি সদস্যের কমিটি গঠন করা হল।’

আর এই ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের একটি কমিটিও করেছে সরকারি চাকরিতে কোটা বাতিলের আন্দোলন করে পরিচিতি পাওয়া বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ। এই কমিটিতে রয়েছেন পরিষদের ঢাবি সভাপতি বিন ইয়ামিন ও কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহবায়ক তারেক রহমান ও রাফিয়া সুলতানা।

তদন্ত কমিটিকে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে সুপারিশসহ ঘটনার বিস্তারিত তথ্য কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের নিকট প্রেরণ করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ