- সোনালী সংবাদ - https://sonalisangbad.com -

চীনের আরও ৪৭ অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত, বেইজিংয়ে কড়া প্রতিক্রিয়া

চীনের আরও ৪৭ অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত

অনলাইন ডেস্ক:

দ্বিতীয় দফার ৪৭টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করা নিয়েও কড়া প্রতিবাদ জানাল চীন। নয়াদিল্লিকে রীতিমতো হুমকির সুরে দেশটির চীনা দূতাবাস বলেছে, ‘ভুল শুধরে নিন’।

পাশাপাশি উইচ্যাটসহ চীনা অ্যাপগুলির উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার আর্জিও জানিয়েছেন দূতাবাসের মুখপাত্র জি রং। তবে একই সঙ্গে চীনা ব্যবসায়ীদের আন্তর্জাতিক নিয়মকানুন মেনে চলার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সূত্রে খবর, শুধু এই ৫৯টি এবং ৪৭টি নয়, সব মিলিয়ে মন্ত্রণালয়ের তালিকায় রয়েছে মোট ২৫০টি চীনা অ্যাপ। ফলে আরও অ্যাপ নিষিদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

জাতীয় সুরক্ষার পক্ষে ক্ষতিকারক— এই অভিযোগে গত ২৯ জুন টিকটক-সহ ৫৯টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে দেয় ভারত সরকার। তখনও কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিল বেইজিং।

এর পর গত সোমবার আরও ৪৭টি অ্যাপ নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে নয়াদিল্লি। এই অ্যাপগুলি মূলত আগের নিষিদ্ধ অ্যাপগুলির ক্লোন হিসেবে কাজ করছিল।

সেগুলির মধ্যে রয়েছে টিকটক লাইট, হেলো লাইট, শেয়ারইট লাইট, বিগো লাইভ লাইট, ভিএফওয়াই লাইটের মতো অ্যাপ। দ্বিতীয় দফায় এই সব অ্যাপ নিষিদ্ধ করায় ফের চটেছে বেইজিং।

সেই প্রেক্ষিতেই এদিন নয়াদিল্লির চীনা দূতাবাসের পক্ষে জি রং বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘২৯ জুন ভারত সরকার উইচ্যাট-সহ চীনভিত্তিক ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করেছে। এর ফলে চীনের সংস্থাগুলির ন্যায্য অধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বেইজিং নয়াদিল্লিকে জানিয়েছে এবং যে ভুল করেছে, তা শুধরে নেয়ার কথা বলেছে।’

পাশাপাশি নিজেদের দেশের ব্যবসায়ীদের প্রতিও বার্তা দিয়েছেন জি রং। বলেছেন, ‘আমি আশ্বস্ত করতে চাই যে, চীন সরকার প্রতিনিয়ত দেশের ব্যবসায়ীদের আন্তর্জাতিক নিয়মকানুন মেনে ব্যবসা করার কথা বলেছে। তবে ভারতেরও উচিত চীনসহ বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আইনি অধিকার সুরক্ষিত করা।’

জোর করে বিষয়টিতে নয়াদিল্লি হস্তক্ষেপ করেছে বলেও মন্তব্য করেছে চীনা দূতাবাস। পাশাপাশি জি রং বলেছেন, ‘চীনা সংস্থাগুলির প্রতি এই ধরনের অর্থনৈতিক বিরুদ্ধাচরণ আদপে ভারতেরই ক্ষতি করবে।’ -আনন্দবাজার

সোনালী সংবাদ/এইচ.এ