চাইলেই বিকাশ থেকে মিলবে ১০ হাজার টাকা ঋণ

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশের শীর্ষ মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান বিকাশের গ্রাহকরা জরুরি প্রয়োজনে  তাৎক্ষণিকভাবে সিটি ব্যাংক থেকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারবেন। কোনো নথিপত্র ছাড়াই শুধুমাত্র বিকাশ অ্যাপ ব্যবহার করে ঋণের জন্য আবেদন আবেদন করলেই হবে। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানিয়েছে সিটি ব্যাংক ও বিকাশ কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আবেদনকারী গ্রাহক ঋণ পাওয়ার যোগ্য কিনা তা তার লেনদেনের ধরন দেখে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার (আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স) মাধ্যমে যাচাই করা হবে। ঋণ পাওয়ার যোগ্য বলে বিবেচিত হলে আবেদন করার সাথে সাথেই সিটি ব্যাংক ঋণ দেবে এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঋণের টাকা গ্রাহকদের বিকাশ একাউন্টে চলে যাবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, এই ঋণের সুদের হার হবে ৯%। ঋণ নেওয়ার পরের তিন মাসে সম-পরিমাণ তিন কিস্তিতে নির্ধারিত ঋণের টাকা পরিশোধ করতে হবে। গ্রাহকের বিকাশ হিসাব থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঋণ পরিশোধ হয়ে যাবে। নির্ধারিত পরিশোধ তারিখের আগে গ্রাহককে ক্ষুদে বার্তা এবং অ্যাপসের মাধ্যমে এ সংক্রান্ত তথ্য পাঠানো হবে।

এছাড়া গ্রাহকরা নিয়মিত ঋণ পরিশোধ করছেন কিনা সেটিও পর্যবেক্ষণ করা হবে। যারা নিয়মিত লেনদেন করবেন তাদের পরবর্তী ঋণের ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। কোনো গ্রাহক ঋণ পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে বিধিবিধান অনুসরণে সিটি ব্যাংক ঋণ খেলাপির তথ্য বাংলাদেশ ব্যাংককে অবহিত করবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

সিটি ব্যাংক ও বিকাশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে পাইলট প্রকল্পের আওতায় বিকাশের কিছু নির্দিষ্ট গ্রাহক সর্বোচ্চ ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ঋণ পাবেন। প্রকল্প সফলভাবে শেষ হলে বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদন সাপেক্ষে এটি চালু করা হবে। একই সাথে বাড়বে ঋণের পরিমাণ ও আওতা।

আরও পড়ুন: বিকাশে মোবাইল রিচার্জে ১০০ পার্সেন্ট ক্যাশ ব্যাক

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ