চাঁপাইয়ে হোম কোয়ারেন্টাইনে ৮৯০ নির্দেশনা মানছে না

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যুরো: চাঁপাইনবাবগঞ্জে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৯০ জনে। অন্যদিকে ১৪দিন মেয়াদ শেষ হওয়ায় ২০০ জনকে কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।
সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজর্বল চৌধুরী জানান, এখন পর্যন্ত জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। এদিকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে কাঁচাবাজার, মুদি ও ওষুধের দোকান ব্যতীত অন্যসব দোকান, হোটেল রেস্তোরাঁ, সাপ্তাহিক হাটসহ সকল প্রকার সমাবেশ ও গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণা করে গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে জেলা প্রশাসন। একসাথে দুজনের বেশি চলাচল নিষিদ্ধের ঘোষণা থাকলেও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার হুজরাপুর রেলবস্তি, রেহাইচর, নতুনহাট ও সদর উপজেলার বালিয়াডাঙ্গা, খালঘাট শিমুলতলা, রামজীবনপুর, আতাহার এবং ঝিলিমবাজার এলাকায় জনসমাগম ঘটছে। স’ানীয়ভাবে ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা, রিক্সা ও মোটরসাইকেল চলাচল করায় জনসমাগম বাড়ছে। এছাড়া শহরের কিছু কিছু দোকান ও বিউটি পার্লার খোলা রেখে ব্যবসা চালিয়ে যাবার খবর পাওয়া গেছে।
এদিকে, জেলা প্রশাসক এ জেড এম নূর্বল হক জানান, সরকারের খাদ্য সহায়তা হিসেবে নিম্নআয়ের মানুষের জন্য জেলার ৫টি উপজেলা ও ৪টি পৌরসভায় ১২৩ মে. টন চাল এবং ৫ লাখ ৩৫ হাজার টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। প্রতিটি উপজেলা ও পৌরসভায় বন্টন করে দেয়া হয়েছে। তালিকা পাওয়ার পর বিতরণ কার্যক্রম শুর্ব করা হবে।
অপরদিকে, সংক্রমণ প্রতিরোধে শহরে আইন-শৃংখলা বাহিনী গাড়ি বহরে মাইকিং এর মাধ্যমে প্রচারনা চালাচ্ছে। এসময় তারা প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে না হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। যাত্রী পরিবহন যান চলাচলে নির্বৎসাহিত করছেন তারা। যারা নির্দেশনা অমান্য করবেন তাদের বির্বদ্ধে আইনানুগ ব্যবস’া গ্রহণ করা হবে।

শর্টলিংকঃ