চাঁপাইনবাবগঞ্জে শারদীয় দুর্গোৎসব শুরু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যুরো: সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা বৃহস্পতিবার ষষ্ঠীর মধ্যদিয়ে শুরু হয়েছে। পূজা উপলক্ষে চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রতিটি মন্ডপে শোভা পাচ্ছে দেবি দুর্গা। সেই সাথে সেজেছে প্রতিটি মণ্ডপ।

ঢাক, কাঁসর ঘণ্টা ও শাঁখের ধ্বনিতে মুখর হয়ে উঠেছে পূজামণ্ডপগুলো। তবে করোনাভাইরাসের কারণে এবার মহাধুমধামে হচ্ছে না দুর্গাপূজা। সংক্রমণ রোধে শারদীয় দুর্গাপূজা এবারের আয়োজন সীমাবদ্ধতার মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে।

এদিকে, শুক্রবার মহাসপ্তমীর মধদিয়ে চন্ডি পাঠে মুখরিত থাকবে প্রতিটি মন্ডপ। দেবী দূর্গার আগমণে করোনার মাঝেও ভক্তদের মাঝে লেগেছে আনন্দের দোলা।

আয়োজকরা বলছেন, সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক পরিধান ও সামাজিক দূরত্ব মেনে একসঙ্গে অধিক সংখ্যক আগত দর্শনার্থীদের মণ্ডপে প্রবেশে সীমিত করা হয়েছে।

পঞ্জিকামতে, জগতের মঙ্গল কামনায় দেবী দুর্গা এবার মর্ত্যলোকে আসবেন দোলায় চড়ে। আর বিজয়া দশমীতে বিসর্জনের মধ্য দিয়ে দেবী স্বর্গলোকে বিদায় নেবেন গজে চড়ে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সার্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি ডাবলু কুমার ঘোষ জানান, প্রতিবছর নতুনত্ব থাকলেও এবার করোনার কারণে এ মণ্ডপে তেমন আলোকসজ্জায় নতুনত্ব নেই। করোনা পরিস্থিতির কারণে যতটুকু প্রয়োজন ততটুকু সীমিত আকারে আলোকসজ্জা করা হয়েছে।

জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক ধনঞ্জয় চ্যাটার্জি জানান, জেলায় এবার ১৩৬ টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে এবার করোনার কারণে এ উৎসবকে কেন্দ্র করে হিন্দু ধর্মালম্বীদের যেন আনন্দের কমতি নেই। করোনার কারণে এবার পূজার অনুষ্ঠানমালা শুধু ধর্মীয় রীতিনীতি অনুসরণ করে পূজা-অর্চনার মাধ্যমে মন্ডপগুলোতে সীমাবদ্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এদিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম জানান, এবার জেলায় ১৩৬ টি পূজামন্ডপে পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই মন্ডপগুলোতে আইনপ্রয়োগকারি সংস্থার বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া সার্বিক নিরাপত্তায় সাদা পোষাকে রয়েছে গোয়েন্দা সদস্যদের নজরদারী।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ