চাঁপাইনবাবগঞ্জে উপেক্ষিত সামাজিক দূরত্বের নির্দেশনা 


চাঁপাইনবাবগঞ্জ ব্যুরো: করোনা সংক্রমণ এড়াতে সরকারি নির্দেশনা রয়েছে সামাজিক দূরত্ব বজায় ও মাস্ক পড়ে চলাচলের। কিন্তু চাঁপাইনবাবগঞ্জে কেউ তা মানছেন, কেউ বা মানছেন না। এ অবস্থায় করোনা ঝুঁকি বাড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকেই।

এতে করে মনে হচ্ছে অনেকের মধ্যে স্বাভাবিকতা চলে এসেছে এমন ভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব মানছেনা মানুষ, রাস্তায় মানুষের চলাচলে ব্যাপকতাও বেড়ে গেছে এবং বিভিন্ন চায়ের দোকানসহ ছোটখাটো খাবার দোকানে বসে আড্ডাও দিচ্ছে।

জেলা শহরের পুরাতন বাজার ও নিউমার্কেট, বড় ইন্দারামোড়সহ বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা যায়, পুরাতনবাজার এলাকার তহাবাজারে গার্মেন্টেসের দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভিড়। দেখে মনে হয় না স্বাভাবিক সময়ের বাজার। এ বাজারে নারীদের আনাগোনায় বেশী।

দোকানিরা বলছেন, সামনে ঈদ তাই তারা ঈদের বাজারে করছে। শরীরের সাথে শরীর ঠেকিয়ে ক্রয় করছে, কিছুতেই নজর নেই সামাজিক দূরত্বের। দোকানিরা বলছেন, সামাজিক দূরত্ব রেখে ক্রেতাদের বলা হলেও তারা সেদিকে মোটেও খেয়াল করছে না।

এদিকে বড় ইন্দারামোড়ে ব্র্যাক ব্যাংকের প্রবেশ দ্বারে গ্রহীতাদের প্রচন্ড ভিড় দেখা গেছে। দেখে মনে হয়নি এটি করোনাকাল। ব্যাংকের নিরাপত্তা প্রহরীরাও তাদের আচরণে অসহায়ত্ব বোধ করছেন। নিউমার্কেটে দেখা গেছে জটলা বেঁধে ক্রেতারা প্রবেশ করছে। এমনকি কিছু কিছু দোকানে সামাজিক দূরত্ব বজায় পর্যন্ত ক্রেতাদের মধ্যে দেখা যায়নি।

পর্যবেক্ষক মহল মনে করছেন, এব্যাপারে প্রশাসনসহ আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার নজরদারি বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করছেন অনেকেই। তা না হলে বাড়তে পারে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি।

এছাড়া সামাজিক দূরত্ব বজায় ও অপ্রয়োজনে যারা রাস্তায় চলাচল করছেন তাদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত ব্যবস্থা নিলে মানুষের মাঝে সচেতনতা কিছুটা হলেও ফিরে আসবে এমনটিও মনে করছেন অনেকেই।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ