চসিক নির্বাচনে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ

এফএনএস: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনে দল ও দলীয় শৃঙ্খলার স্বার্থে বিদ্রোহী প্রার্থীদের সরে দাঁড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে আওয়ামী লীগ।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরের থিয়েটার ইনস্টিটিউটে র্বদ্ধদ্বার এক বৈঠক শেষে চসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে এ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ও দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনসহ নেতারা বলেন, যারা আওয়ামী লীগ করেন তারা নির্বাচন থেকে সরে দাড়াঁবেন। না হলে দলীয় প্রধানের নির্দেশনা অনুযায়ী তাদের বির্বদ্ধে ব্যবস’া নেয়া হবে। এর আগে সকাল ১০টা থেকে দলের বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে আওয়ামী লীগের নির্বাচন সমন্বয় কমিটি বৈঠক শুর্ব করে।
বৈঠক শেষ হয় বেলা ২টার দিকে। বৈঠকে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান সমন্বয়ক ও প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন ছাড়াও অংশ নেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, সাংসদ এম এ লতিফ, সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির, নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট ইব্রাহীম হোসেন চৌধুরী বাবুল। বৈঠকে অংশ নেয়া প্রতিটি ওয়ার্ডের বিদ্রোহী প্রার্থীদের দলীয় পরিচয়সহ বিভিন্ন বিষয় জানতে চাওয়া হয়। এর আগে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন জানিয়েছিলেন, এই বৈঠকের মাধ্যমে বিদ্রোহী কাউন্সিলর প্রার্থীদের সরানো না গেলে রোববার (৮মার্চ) বিদ্রোহীদের বির্বদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নেবেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। উলেৱখ্য, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন লাভে ব্যর্থ হন ১৮ জন বর্তমান কাউন্সিলর। তাদের মধ্যে ১৩ জন সাধারণ ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং ৫ জন সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর। এছাড়াও দলের বিভিন্ন পদে থাকা আরও অন্তত ১০ জন দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে প্রার্থী হয়েছেন। গত বৃহস্পতিবার শেষ দিন পর্যন্ত তারা চসিক নির্বাচনে চট্টগ্রাম আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

শর্টলিংকঃ