গাইবান্ধায় পানিবন্দি হাজারো মানুষ

অনলাইন ডেস্ক: টানা কয়েকদিনের বৃষ্টি ও উজান থেকে নেমে আসা ঢলে গাইবান্ধার নদ-নদীগুলোতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এতে করে চরাঞ্চল ও নিম্নাঞ্চল এবং বাঁধের ভাঙা অংশ দিয়ে লোকালয়ে পানি প্রবেশ করে প্লাবিত হচ্ছে গ্রামের পর গ্রাম।

পানিবন্দি হয়ে পড়েছে জেলার সদর উপজেলা, সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন। এসব ইউনিয়নের তিন হাজার ২০২ পরিবারের ১২ হাজার ৮০৫ জন মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

রবিবার বিকেল ৩ টায় ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ফুলছড়ি ঘাট পয়েন্টে বিপদসীমার ৬৬ সেন্টিমিটার ও ঘাঘট নদীর পানি ৪১ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। এছাড়া তিস্তা ও করতোয়া নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা এ কে এম ইদ্রিশ আলী রবিবার বিকেলে বলেন, এ পর্যন্ত ৪০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ২ লাখ টাকা বন্যাকবলিত চার উপজেলায় বিতরণের জন্য বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের মাধ্যমে এসব বিতরণ করা হবে। রবিবার বিকেলে নতুন করে ৬০ মেট্রিক টন চাল ও নগদ ৫ লাখ টাকা বরাদ্দ পেয়েছি। যা পর্যায়ক্রমে বরাদ্দ দেওয়া হবে।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ