গরুর গোবরের মূল্য নির্ধারণে ৫ সদস্যের বিশেষজ্ঞ কমিটি!

  • 36
    Shares

অনলাইন ডেস্ক:

গবাদিপশুকে কৃষকদের কাছে অর্থনৈতিকভাবে আরও লাভবান করে তুলতে এবার গোবর কেনার ঘোষণা দিয়েছে ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্য সরকার।

শুধু তাই নয়, গোবরের দাম নির্ধারণে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে পাঁচ সদস্যের কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল গতকাল বৃহস্পতিবার নতুন এই প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন, ‘হরেলি (স্থানীয় উৎসব) থেকেই এই প্রকল্প চালু হয়ে যাবে।’

গোবর বিক্রি করে কৃষকরা কত টাকা পাবেন, এ বিষয়ে ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী সাত-আট দিনের মধ্যেই গোবরের দাম নির্ধারণ করা হবে। এ জন্য পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন হয়েছে। কৃষি ও পানিসম্পদ মন্ত্রী রবীন্দ্র চৌবেকে এই কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে।’

এমন একটি পরিকল্পনার কারণ হিসেবে ভূপেশ বাঘেল জানান, গরু ছেড়ে রাখার একটি ধারা লোকজনের মধ্যে রয়েছে। গবাদিপশু রাস্তাঘাটে অবাধে বিচরণ করায় বহুবার দুর্ঘটনা ঘটেছে।

যার জেরে প্রাণহানিও হয়েছে। আবার ছাড়া গরু অন্যের ফসল খেয়ে নষ্ট করে। মুখ্যমন্ত্রীর ভাষ্য, গরু ছেড়ে রাখার এই যে ধারা চলে আসছে, তা বন্ধ করতেই এই পদক্ষেপ।

বাঘেল বলেন, গরু দুধ দেওয়া বন্ধ করলে অনেকেই সেই গরুকে ঘরে রাখেন না। মালিকানাহীন, পরিত্যক্ত হয়ে রাস্তায় ঘুরে বেড়ায়। মুখ্যমন্ত্রীর ধারণা, সরকারি উদ্যোগে গোবর কেনা শুরু হলে আর্থিক উপার্জনের কথা ভেবে কেউ আর গরু ছেড়ে রাখবেন না।

রাস্তাঘাটে গরুর অবাধ বিচরণ বন্ধ করতে নগর প্রশাসন বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী। বাড়ি বাড়ি গিয়ে গোবর কেনা থেকে ভার্মি কম্পোস্ট তৈরির দায়িত্বও নগর প্রশাসন বিভাগকে দিয়েছেন তিনি।

ভূপেশ বাঘেল বলেন, এই ধরনের প্রকল্পে লোকজন গবাদিপশু পালনে আগ্রহী হবে। ফলে গ্রামীণ অর্থনীতির বিকাশ হবে।

সোনালী সংবাদ/এইচ.এ

শর্টলিংকঃ