ক্যাম্পাস ছেড়েছে শিক্ষার্থীরা

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শঙ্কায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ও রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক হলগুলো বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ক্যাম্পাস ছেড়েছেন বিশ্ববিদ্যায় দুটি শিক্ষার্থীরা। এর আগে গত সোমবার করোনাভাইরাস সংক্রমণ শঙ্কায় ১৮ই মার্চ থেকে একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয় রাবি ও রুয়েট কর্তৃপক্ষ।
রাবি ও রুয়েট সূত্রে জানা যায়, বুধবার থেকে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় দু’টির একাডেমিক কার্যক্রম এবং হলগুলো বন্ধ থাকবে। তবে দাপ্তরিক কার্যক্রম চলবে। বুধবার দুপুর ১২টায় রুয়েটের এবং বিকেল ৪টায় রাবির হলগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়।
অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শাইক আনাম বলেন, হল ও ক্যাম্পাস বন্ধ হয়ে গেছে সেজন্য বাধ্য হয়ে রাজশাহী ছাড়তে হচ্ছে। করোনা ভাইরাসের ক্ষতি থেকে বাঁচতে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে হবে। প্রশাসনও এইভেবে হল বন্ধ করে দিয়েছে।
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে রাবির একাডেমিক কার্যক্রম ও হলগুলো বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আপাতত ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নোটিশের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কার্যক্রম চলবে।
রুয়েটের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক সেলিম হোসেন বলেন, পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে আগামী ১ এপ্রিল রুয়েটের হল খুলে দেওয়া হবে।

শর্টলিংকঃ