‘কর্তৃপক্ষের চাপে’ ডিউটি করছেন করোনা আক্রান্ত নার্স

অনলাইন ডেস্ক:

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের জ্যেষ্ঠ সহকারী নার্স শারমিন আফরোজ। তারপরও ‘কর্তৃপক্ষের চাপে’ তাকে  ডিউটি করতে হচ্ছে হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে।

জ্বর, হাঁচি-কাশি, শরীরে ব্যথা নিয়ে কাজ করছেন নার্স শারমিন আফরোজ। কথা হলে তিনি জানান, গত ২৬ জুলাই নমুনা দিলে ২ আগস্ট তার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ৮ আগস্ট পর্যন্ত তিনি বাড়ি ছিলেন। শারমিন বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের চাপে ৯ আগস্ট থেকে হাসপাতালে যোগ দেই।’

তিনি আক্ষেপের সুরে আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমার বাড়িতে থেকে বিশ্রাম নেওয়া দরকার, চিকিৎসা নেওয়া দরকার। কিন্তু, কর্তৃপক্ষের চাপে আমাকে নিয়মিত ডিউটিতে আসতে হচ্ছে।’

অবশ্য, সচেতন থেকে, সতর্কভাবে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ডিউটি করছেন নার্স শারমিন আফরোজ। এদিকে হাসপাতালে আসা রোগীরা যারা জানতে পারছেন শারমিনের কথা, তারা চলে যাচ্ছেন। যারা জানছেন না তারা ঝুঁকির মধ্যে সেবা নিচ্ছেন।

লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘বিষয়টি আমার জানা নেই। করোনা আক্রান্ত কোনো নার্স কেন, কোনো স্বাস্থ্যকর্মীই কর্মস্থলে আসতে পারবেন না।’

তিনি জানান, করোনা আক্রান্ত নার্স শিশু ওয়ার্ডে কিভাবে ডিউটি করছে এবং কেন তাকে আসতে বলা হয়েছে সে বিষযে খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

লালমনিরহাট সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায় বলেন, ‘এটা মারাত্মকভাবে ঝুঁকির কারণ হতে পারে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’ -দৈনিক আমাদের সময়

সোনালী সংবাদ/এইচ.এ

শর্টলিংকঃ