করোনা বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করার আহ্বান কাদেরের

  • 67
    Shares
আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিন একেবারে বন্ধ না করে সপ্তাহে দুইদিন প্রচারের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ বুধবার সকালে সিলেট জোন, বিআরটিএ ও বিআরটিসি’র কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় এই আহ্বান জানান তিনি। ওবায়দুল কাদের তার সরকারি বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে মতবিনিময় সভায় যুক্ত হন।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে শুরুর দিকে গণমাধ্যমকর্মীদের উপস্থিতিতে নিয়মিত প্রেস ব্রিফিং চলত। করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকলে একপর্যায়ে তা অনলাইনে শুরু হয়। তবে সেই সময়ও সাংবাদিকদের প্রশ্ন করার সুযোগ ছিল। তবে গত ৮ এপ্রিল গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্ন করার সুযোগ বন্ধ হয়ে যায়। শুধু প্রতিদিন বেলা আড়াইটায় বুলেটিন চালু রাখা হয়েছিল।

ব্রিফিংয়ের শুরুতে আসতেন সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা। পরে মাঝেমধ্যে এতে যুক্ত হতেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তৎকালীন পরিচালক আবুল কালাম আজাদ। পরে বুলেটিনে প্রায় প্রতিদিনই আসা শুরু করেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত পরিচালক নাসিমা সুলতানা। কিন্তু আজ থেকে করোনার ব্রিফিং করা হবে না বলে গতকাল বুলেটিন উপস্থাপনকালে জানান নাসিমা সুলতানা। প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গণমাধ্যমে করোনা সংক্রমণ–সংক্রান্ত তথ্য দেয়া হবে বলে ব্রিফিংয়ে জানানো হয়।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের একেবারে বুলেটিন বন্ধ না করে সপ্তাহে দুই দিন বুলেটিন প্রচারের আহ্বান জানান। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুসহ প্রতিদিন স্বাস্থ্য বিভাগের আপডেট বন্ধ হলে সংক্রমণ বিস্তারে জনমানুষের মাঝে শৈথিল্য দেখা দিতে পারে। পাশাপাশি গুজবের ডাল-পালা বিস্তারের আশঙ্কাও থেকে যাবে। তাই বিষয়টি বাস্তবতার নিরিখে বিবেচনায় নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতিও অনুরোধ করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের জানান, করোনার এ সময়ে সরকার জনসমাবেশ বা কোন ধরনের সমাগম সংক্রমণ রোধের স্বার্থে বন্ধ ঘোষণা করেছে।

কোন ধরনের অনিয়ম কিংবা হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সরকার দ্রুততার সঙ্গে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ নিয়ে মানববন্ধন ও রাজনৈতিক কর্মসূচি করোনার সংক্রমণকে উৎসাহিত করতে পারে।

মন্ত্রী বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেকোনো মামলার সন্দেহভাজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে। এজন্য তিনি সকলকে ধৈর্য ও সহনশীলতা প্রদর্শনের আহ্বান জানান।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ