করোনার ওষুধ আবিষ্কারের দাবি

সোনালী ডেস্ক: অবশেষে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় আসলো বিশেষ ন্যানোমেটেরিয়াল যা শরীরে ঢুকে মুহূর্তের মধ্যে গিলে খেয়ে শেষ করে ফেলবে করোনাভাইরাসকে। এমনটাই দাবি করেছেন চীনা বিজ্ঞানীরা।
সারাবিশ্বে করোনার তা-ব দিন দিন আরও ভয়াবহ হচ্ছে। সোমবার রাত পর্যন্ত এ ভাইরাসে মারা গেছেন ৩৭ হাজার ৮৪৬ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৪৩ হাজার ৯৯ জন। শুধুমাত্র ইতালিতেই মারা গেছেন ১০ হাজার ৭৭৯ জন। এছাড়া স্পেনে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৩৪০ জনের।
সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে, ১ লাখ ৪৫ হাজার ৬৮৯ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজার ৬০৬ জন। এমন পরিসি’তিতে চীনের সরকারি মিডিয়া গেৱাবাল টাইমসের এক টুইটে নতুন করে আশার আলো পেয়েছে গোটা বিশ্ব। এতে বলা হয়েছে, করোনার মোকাবিলার জন্য হাতিয়ার প্রস’ত। চীনা গবেষকদের দাবি, এই ওষুধ প্রয়োগ করে ৯৬.৫ থেকে ৯৯.৯ শতাংশ সাফল্য পাওয়া গেছে।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ এইটটিনের খবরে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের মোকাবিলার জন্য গবেষকেরা এক রকম ন্যানোমেটেরিয়াল বানিয়েছেন যা শরীরে প্রবেশ করে করোনাভাইরাস শুষে নেয় এবং এরপর তাকে ৯৯.৯ শতাংশ পর্যন্ত নিষ্ক্রিয় করে ফেলে। বৈজ্ঞানিকরা একে ভ্যাকসিন বা ওষুধ বলতে রাজি নন।
তাদের মতে, এটি একটা জৈব অস্ত্র যাকে করোনার সঙ্গে লড়াইয়ের জন্যই তৈরি করা হয়েছে। ন্যানোমেটেরিয়াল হেলথকেয়ার ছাড়াও পেন্টস, ফিল্টার, ইনসুলেশন এবং লুব্রিকেট করার কাজেও ব্যবহার করা হয়। করোনাভাইরাসের মোকাবিলার ক্ষেত্রে এটা দেহে প্রবেশের পর শরীরের বাকি এনজাইমগুলোর মতোই কাজ করে। আর এতেই আসে সাফল্য।

শর্টলিংকঃ