এমসি কলেজে ধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক: সিলেটের মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে রেখে নববধূকে গণধর্ষণের মামলার প্রধান আসামি সাইফুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার সকালে সুনামগঞ্জের ছাতক থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শাহপরান থানার ওসি কাইয়ুম চৌধুরী গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সাইফুর রহমান ছাত্রলীগের ক্যাডার হিসেবে পরিচিত। ধর্ষণকাণ্ডের পর তার কক্ষ থেকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা হয়েছে।

গত শুক্রবার দিবাগত রাত ৮টার দিকে এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটক রেখে তরুণীকে কয়েকজন দল বেঁধে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই দম্পতিকে ছাত্রাবাস থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ধর্ষণের শিকার তরুণীকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দক্ষিণ সুরমার নবদম্পতি শুক্রবার বিকালে প্রাইভেটকারে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে বেড়াতে যান। পরে কলেজের ছাত্রলীগের ছয়জন নেতাকর্মী স্বামী-স্ত্রীকে ধরে ছাত্রাবাসে নিয়ে প্রথমে মারধর করেন। পরে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন।

এই ঘটনায় শনিবার ভোরে ছয়জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ২-৩ জনকে অভিযুক্ত করে শাহপরান থানায় মামলা দায়ের করেন ধর্ষিতার স্বামী। এছাড়া ছাত্রাবাসে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় ছাত্রলীগ ক্যাডার সাইফুর রহমানকে আসামি করে পৃথক আরেকটি মামলা দায়ের করেন শাহপরান থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মিল্টন সরকার।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ