এমপি ফিরোজ রশিদের বক্তব্য এক্সপাঞ্জের আহ্বান নির্মূল কমিটির

  • 9
    Shares


সোনালী ডেস্ক: সংসদে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির প্রতি কদর্য ভাষায় বিষোদগার ও নিষিদ্ধের দাবি জানানোয় জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদকে তীব্র নিন্দা জানানো হয়েছে সংগঠনটির পক্ষ থেকে।

সোমবার দেশের মৌলবাদ ও সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী সর্ববৃহৎ নাগরিক সংগঠন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির নেতৃবৃন্দ স্পিকারের কাছে পাঠানো এক বিবৃতিতে প্রতিবাদ জানায়।

বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি লেখক সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির, সহসভাপতি শহীদজায়া শ্যামলী নাসরিন চৌধুরী, অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন, মুক্তিযোদ্ধা কলাম লেখক সৈয়দ মাহবুবুর রশিদ, শিক্ষাবিদ মমতাজ লতিফ ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল এই প্রতিবাদে লিপিতে সই করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২৪ জানুয়ারি জাতীয় সংসদের অধিবেশনে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ যে কদর্য ভাষায় একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির প্রতি বিষোদগার করেছেন আমরা এর তীব্র নিন্দা করি এবং সংসদের ধারাবিবরণী থেকে এ ধরনের অসংসদীয়, কদর্য, রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মিথ্যা বক্তব্য এক্সপাঞ্জ করার জন্য স্পিকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

এর আগে রোববার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, ‘আমাদের অনেক ভুঁইফোড় সংগঠন আছে। একটি সংগঠন আছে, নাস্তিক নির্মূল কমিটি আর একটি সংগঠন হচ্ছে ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি।

এই নির্মূল করার ক্ষমতা এদের কে দিয়েছে। তুমি কে লোককে নির্মূল করার। আমাদের দেশে কোর্ট-কাচারি আছে না? ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলব-এই সমস্ত সংগঠনগুলো বন্ধ করুন, যাতে কেউ নির্মূল করতে না পারে। কিসের নির্মূল কমিটি। এটা সমাজের একটা কালচার হয়ে গেছে।’

 

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ