এবার রাজশাহীতেও মিললো মৃত কুকুর

স্টাফ রিপোর্টার: করোনাভাইরাসের আতঙ্কে স্তব্ধ দেশ। বন্ধ হয়েছে স্কুল, কলেজ দোকান-পাট। প্রশাসনের তৎপরতায় প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছে না কেউ। গ্রামেও এর প্রভাব পড়েছে। এমন সময় রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুÐুমালায় পৌর এলাকায় হঠাৎ করে মরতে শুরু করেছে কুকুর।
গত কয়েক দিনে মুÐুমালা পৌর এলাকায় ৫টি কুকুর মরে থাকতে দেখা যায়। মুÐুমালা বাজারের হোমিও চিকিৎসক ডা. হাসান আলীর বাড়ি পিছন দিকে গত মঙ্গলবার দুটি কুকুর মরে থাকতে দেখে পৌর মেয়রকে খবর দেন এলাকাবাসী। পরে মেয়রের নির্দেশে কুকুর দুটিকে গর্ত করে মাটি চাপা দেয়া হয়।
পরের দিন মুÐুমালা পৌর এলাকার জগদীসপুর গ্রামে একটি কুকুর মারা যায়। এ কুকুর মারা যাওয়ার ঘটনায় স্থানীয় লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দেয়। এছাড়াও আরও তিনটি কুকুর মারা যাওয়ার খবর রয়েছে পৌরমেয়রের কাছে।
মুÐুমালা পৌরসভার মেয়র গোলাম রাব্বানী বলেন, গত কয়দিনে পৌর এলাকায় প্রায় ৫টি কুকুর মারা গেছে। আমরা মরা কুকুরগুলোকে বেশি গর্ত করে পুতে ফেলেছি। এছাড়াও প্রতিটি ওয়ার্ডে জিবাণুনাশক স্প্রে ছিটানোর কাজ চলছে। হ্যান্ডগøাভস ও মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এসব কুকুর একের পর এক মারা যাওয়া ঘটনায় আমাদের চিন্তার ফেলেছে। মানুষকে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য বলা হচ্ছে। মৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখা দরকার।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, কুকুর মারা যাওয়ার বিষয়টি তাকে কেউ জানায়নি। তবে প্রাণিসম্পদ অফিসকে এখনি মারা যাওয়া কুকুরগুলোর বিষয়ে অনুসন্ধান করার নির্দেশ দেয়া হবে।
কি কারণে কুকুরের মড়ক দেখা দিয়েছে তার কোনো ব্যাখ্যা মেলেনি কারো কাছে। এর আগে, বরগুনা ও নেত্রকোনাতেও একসাথে একাধিক কুকুরের মৃত্যু সংবাদ আসায় আতঙ্ক ছড়ায় স্থানীয়দের মধ্যে।

শর্টলিংকঃ