এখনও বিশ্বাস করি, বামপন্থাই বিকল্প: সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়


সোনালী ডেস্ক: ‘কে রামকে ভালোবাসল, কে রহিমকে- তা কোনও ব্যাপারই হতে পারে না। তাই বার বার মনে হয়, এসবের বিকল্প হতে পারে একমাত্র বামপন্থাই।’ এভাবেই স্পষ্টভাবে নিজের বিশ্বাস ও আস্থার কথা ব্যক্ত করলেন কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

আপাতত এ বর্ষীয়ান অভিনেতার লড়াই চলছে করোনার সাথে নার্সিং হোমে। সর্বস্ব বাজি রেখেই যিনি শেষ পর্যন্ত বলতে থাকেন, ‘এখনও বিশ্বাস করি, বামপন্থাই বিকল্প’। তার কথা কলকাতার গণশক্তি পত্রিকা ছেপেছে তাদের শারদ সংখ্যায়।

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পূর্বে লকডাউনের মধ্যে সিপিএমের চালু করা শ্রমজীবী ক্যান্টিনেও ঘুরেছেন সৌমিত্র। নিজের রাজনৈতিক দর্শনে অটল থেকেই এ বার পূজার লেখায় তিনি সরব হয়েছেন ধর্মীয় উন্মাদনা ও ভণ্ডামির বিরুদ্ধে।

গল্পের আকারে গণশক্তির পাতায় সৌমিত্র বলছেন- ছেলেবেলায় সাম্প্রদায়িকতা শব্দটা শুনিনি এমন নয়। তবে আর পাঁচটা শব্দের মতোই আমাদের কাছে সাধারণ এক শব্দ ছিল মাত্র। কোনও বিশেষত্ব ছিল না। ফলে মাথায় গেঁথে যায়নি। বা গেঁথে যাওয়ার মতো পরিবেশও তৈরি করা হয়নি তখন। ছেচল্লিশের দাঙ্গায় নদীয়া জেলার কোথাওই কোনও প্রভাব পড়েনি। কৃষ্ণনগরেও না। এখন সত্যিই খুব হতাশ লাগে। আমার চেনা দেশ এখন কোন অন্ধকারের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, আদৌ সেই অন্ধকার কাটিয়ে উঠতে পারবে কি না জানি না

করোনার অতিমারিতে এত মানুষের মৃত্যু ও আক্রান্ত হওয়ার দুঃসহ পরিস্থিতির মধ্যেও রামমন্দিরের শিলান্যাস এবং তাকে ঘিরে উন্মাদনায় তিনি স্তম্ভিত। এই বিস্ময়ের সূত্রেই তাঁর মন্তব্য, ভাবলে অবাক লাগে, যাঁর আমলে ২০০২ সালে গুজরাতে ভয়ঙ্কর দাঙ্গা হল, সেই তিনিই আজ ভারতবর্ষের মসনদে! ভারতবর্ষের মানুষ এঁদের সহ্য করছেন, তাঁদেরই ভোট দিয়ে আবার জেতাচ্ছেন। তার একটা বড় কারণ আমার মনে হয়, মানুষ শক্তিশালী কোনও বিকল্প পাচ্ছেন না বা বুঝে উঠতেই পারছেন না।

তাই বলে এটা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ওরফে আমাদের অসীমের হতাশা ভেবে ভুল করা চলবে না। বলা চলে আকাঙ্খার সঙ্গে বাস্তবের অমিল এবং তা থেকে যেন জমাট বাঁধা অভিমানের কথা। সে কারণেই তিনি তাঁর কৃষ্ণনগরে কাটানো ছোটবেলার স্মৃতি থেকে তুলে এনেছেন একে অপরের ধর্মীয় ও সামাজিক আচারের প্রতি ভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষের শ্রদ্ধা ও সহিষ্ণুতার ছবি। আর একারণে এখনো নিঃসংশয়ে বলতে পারেন, ‘আমার বিশ্বাস, বিকল্প কেউ হতে পারলে বামপন্থীরাই হতে পারেন।’ অর্থনীতি থেকে রাজনীতি, সবখানেই চলতে থাকা ‘চালাকি’র বাইরে বামপন্থাই যে বিকল্প হতে পারে, সে কথা ফের নিঃসংশয়ে বলেছেন সৌমিত্র।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ