ইন্টারনেটের মাধ্যমে শিশু নির্যাতন রোধে পরিবারের ভূমিকাই মূল


স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতে ‘ইন্টারনেটের অপব্যবহার ও শিশু যৌন নির্যাতন প্রতিরোধ’ বিষয়ক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে বেসরকারি সংস্থা অ্যাসোসিয়েশন ফর কম্যুনিটি ডেভলপমেন্ট (এসিডি) তাদের প্রধান কার্যালয়ে এর আয়োজন করে।

এতে বক্তারা বলেন, শিশুদের ইন্টারনেটের ব্যবহার বন্ধ করা যাবে না। তবে অসামাজিক সাইট ভিজিট তথা অপব্যবহার রোধ করতে হবে। তারা বলেন, ইন্টারনেটের মাধ্যমে শিশু নির্যাতন রোধে পরিবারের ভূমিকাই মূল। তবে এর সঙ্গে শিক্ষকদের এবং ধর্মীয় মূল্যবোধের প্রয়োজন আছে।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক হাসিনা মমতাজ হক। সভবায় এসিডি’র তত্ত্বাবধানে পরিচালিত ইন্টারনেটের অপব্যবহার এবং ট্রাভেল ও ট্যুরিজমের মাধ্যমে শিশুদের যৌন শোষণ প্রতিরোধ প্রকল্পের ধারনাপত্র উপস্থাপন করেন এসিডির প্রকল্প সমন্বয়কারী মোস্তফা কামাল।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজাশাহী মহানগর পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) সোনিয়া পারভীন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান কামরু ও ১৯, ২৯ ও ২১ নং ওয়ার্ডের মহিলা কমিশনার উম্মে সালমা বুলবুলি। এসিডি’র নির্বাহী পরিচালক সালীমা সারোয়ারের সভাপতিত্ব অনুষ্ঠিত এ সভা পরিচালনা করেন প্রোগ্রাম অফিসার শাহানা শারমিন।

সভায় অন্যদের মধ্যে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সদস্যবৃন্দ, সাংবাদিক, ভিক্টিম সাপোর্ট সেন্টারের প্রতিনিধি, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দ, সিবিসিপিসি’র সদস্য বৃন্দ, বিভিন্ন বেসরকারী সংস্থার প্রতিনিধি, শিশু দলের সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ