আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল থেকে পদত্যাগ করলেন ব্যারিস্টার সুমন

সোনালী ডেস্ক: সামাজিক কর্মকাÐে ব্যস্ততা বাড়ার কারণ দেখিয়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ছাড়লেন আট বছর ধরে প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করে আসা ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। ট্রাইব্যুনালের প্রধান প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপুর কাছে গতকাল বৃহস্পতিবার পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুমন বলেন, আমি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি। এখন চিফ প্রসিকিউটর আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ব্যবস্থা নেবেন।
পদত্যাগপত্রে ব্যারিস্টার সুমন লিখেছেন, ২০১২ সালের ১৩ নভেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর হিসেবে যোগ দেওয়ার পর বিভিন্ন মামলা ‘অত্যন্ত নিষ্ঠার সঙ্গে’ পরিচালনা করে এসেছেন তিনি। কিন্তু ইদানীং বিভিন্ন সামাজিক স্বেচ্ছাসেবামূলক কাজে নিবিড়ভাবে জড়িত হয়ে যাওয়ার কারণে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের মত রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানে সম্পূর্ণ নিষ্ঠার সঙ্গে সময় দিতে পারছি না। এমতাবস্থায় সরকারি কোষাগার থেকে বেতন নেয়া আমি অনৈতিক বলে মনে করি। এ কারণে বর্তমান পদ থেকে আমি অব্যাহতি প্রার্থনা করছি। এই আট বছরে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের বেশ কিছু মামলায় প্রসিকিউশনের পক্ষে কাজ করেছেন সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। তার মধ্যে বাগেরহাটের শেখ সিরাজুল হক সিরাজ মাস্টার ওরফে ‘কসাই সিরাজ’এবং গাইবান্ধার আবু সালেহ মুহাম্মদ আবদুল আজিজ মিয়া ওরফে ‘ঘোড়ামারা আজিজ’ এর যুদ্ধাপরাধ মামলার প্রসিকিউটর ছিলেন তিনি। তবে সুমন সা¤প্রতিক সময়ে বেশি আলোচনায় আসেন বিভিন্ন স্থানে ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে ফেইসবুকে লাইভ করে। আইনজীবী সুমনের দায়ের করা মামলাতেই আদালত ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির জবানবন্দির ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অপরাধে সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে আট বছরের কারাদÐ দিয়েছে।

শর্টলিংকঃ