আইসোলেশন থেকে হোম কোয়ারেন্টাইনে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র

স্টাফ রিপোর্টার: করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের রোগীদের জন্য নির্ধারিত রাজশাহীর সংক্রমণ ব্যাধি (আইডি) হাসপাতালের আইসোলেশন থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রকে হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। গত শনিবার রাতে তাকে আইডি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। গতকাল রোববার সকালে ছেড়ে দেয়া হয়।
অসুস্থ ওই ছাত্রের বাড়ি নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলায়। তার স্বজনেরা জানিয়েছেন, গত ১১ মার্চ রাজধানী ঢাকার নিউমার্কেট এলাকায় হাঁটার সময় একজন বিদেশির সঙ্গে ওই ছাত্রের ধাক্কা লাগে। এরপর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। এই ছাত্র করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে তারা আশঙ্কা করছেন।
তবে রাজশাহী আইডি হাসপাতালের পরিচালক ডা. মামুনুর রশিদ বলছেন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত কি না তা তারা নিশ্চিত নন। তার উপসর্গগুলো কোভিড-১৯ এর সঙ্গে মিলছে না। শনিবার রাতে তাকে আইসোলেশনে রেখে পর্যবেক্ষণ করা হয়। উপসর্গ না মেলার কারণে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। তবে আগামী ১০ দিন তাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।
এর আগে করোনা সন্দেহে এই শিক্ষার্থীকে শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। সেখান থেকে তাকে আইসোলেশনে আইডি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছিল।
নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রিয়াঙ্কা দেবী পাল জানান, ওই শিক্ষার্থীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেই পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এছাড়া বাড়িতে থাকা পরিবারের সদস্যদেরও কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। বাড়িটিতে লাল নিশান টানিয়ে দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

শর্টলিংকঃ