অবশেষে চীনে শুল্কমুক্ত সুবিধা পাওয়া পণ্যের তালিকা প্রকাশ

অনলাইন ডেস্ক: দেরিতে হলেও চীনে শুল্কমুক্ত সুবিধা পাওয়া পণ্যের তালিকা প্রকাশ করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। গতকাল রোববার ৮ হাজার ৫৪৯টি পণ্যের ১২৭৯ পৃষ্ঠার তালিকা বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

বৈশ্বিক করোনাভাইরাস (কোভিড- ১৯) মহামারিতে রফতানি পণ্যের বাজার যখন সংকুচিত হয়ে আসছিল ঠিক তখন চীনের বাজারে আরও পাঁচ হাজার ১৬১টি পণ্যে ৯৭ শতাংশ শুল্কমুক্ত সুবিধা পায় বাংলাদেশ। গত ১৬ জুন মোট আট হাজার ২৫৬টি পণ্যের ক্ষেত্রে শুল্কমুক্ত প্রবেশাধিকার দেয়ার ঘোষণা দেয় চীন সরকার। গত ১ জুলাই থেকে এ সুবিধা কার্যকরও হয়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) সূত্রে জানা গেছে, চীন সরকার শুল্কমুক্ত সুবিধা ঘোষণা দেয়ার পর গত ২৪ জুন বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ব্যবসায়ীদের সংগঠন এফবিসিসিআই, বিজিএমইএ ও বিকেএমইএকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দেয়।

সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে, ‘দীর্ঘ নেগোসিয়েশনের পর গত ১৬ জুন চীন বাংলাদেশকে ৯৭ শতাংশ পণ্যে অর্থাৎ আট হাজার ২৫৬টি পণ্যে শুল্ক ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার সুবিধা প্রদান করেছে, যা ২০২০ সালের ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে। চীন প্রদত্ত শুল্কমুক্ত ও কোটামুক্ত পণ্যের তালিকা ‘ওসঢ়ড়ৎঃ ধহফ ঊীঢ়ড়ৎঃ ঞধৎরভভ ড়ভ চবড়ঢ়ষব’ং জবঢ়ঁনষরপ ড়ভ ঈযরহধ, ২০২০’ -এর ওয়েব লিংকে পাওয়া যাবে।’

‘চীনের বাজারে ৯৭ শতাংশ বাংলাদেশি পণ্য রফতানিতে শুল্ক ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার সুবিধা প্রদানের বিষয়টি আপনার সংগঠনের সব সদস্যকে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।’

ওই লিংকে আট হাজার ২৫৬টি পণ্যের তালিকা দেয়া আছে। কিন্তু সেগুলো চীনা ভাষায়। তবে এতদিনে ইংরেজি ভাষায় তালিকা প্রকাশ করা হলো।

চীনের দেয়া এমন সুবিধা কাজে লাগাতে পারলে বৈশ্বিক বাণিজ্যে বাংলাদেশের জন্য নতুন দুয়ার উন্মোচিত হবে, পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ভিত আরও মজবুত হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

সোনালী/আরআর

শর্টলিংকঃ