অন্য কোনো অভ্যেস নেই আমার: জাহারা মিতু

অনলাইন ডেস্ক: মডেল ও অভিনেত্রী জাহারা মিতু অবসর পেলেই বই পড়েন। বই পড়া নিয়ে তিনি মাঝে মাঝে স্মৃতিচারণও করেন। নিজের বই পড়ার অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিয়ে লিখেছেন মিতু। তার লেখাটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

‘‘আমার সারাবেলা কাটেই বই পড়ে। কখনো সাক্ষাৎ বইতো কখনো অনলাইন। সম্ভবত এটাই আমার একমাত্র অভ্যেস। তা ছাড়া অন্য কোনো অভ্যেস আমার তেমন একটা নেই বোধহয়। এই যেমন ধরুন সামান্য চা-কফিতেও আসক্তি হবে বিধায় এর কোনোটাই আমি না পারতে খাই না। আবার শুধুমাত্র কোথাও সৌজন্যতাবশত অন্যের সামনে সামাজিকতা রক্ষার ক্ষেত্রে বছরে দু’একবার চা-কফি পান করি। সত্যি বলতে আমি যখনি বুঝি কোনো একটা কাজ আমার বারবার করতে ভালো লাগছে আমি সেটা সাথে সাথেই আয়ত্ত্বে নিয়ে আসি, তা সে যতো ভালো কাজই হোক না কেনো। খেয়াল করে দেখেন, অনেক সময় অভ্যাসের ফলে অনেক ভালো কাজেও একঘেয়েমি চলে আসে।

যাই হোক, আসল কথায় আসি। বই পড়ার সবচাইতে বড় সমস্যা হলো প্রতিনিয়ত বিভিন্ন চরিত্রের সাথে নিজেকে খাপ খাওয়ানো। এই চরিত্রের কোনোটা বেশ ভাবায় আবার কোনোটা একদমই আমাকে আপন করে নিতে পারে না। একটু খেয়াল করলে দেখবেন আমার এক এক দিনের লেখা এক এক রকম। সবই বইয়ের দোষ, আমি নির্দোষ। আমার দোষ শুধুই বই পড়া।

ঠিক বইয়ের ভেতর যতটা সময় থাকি ততটা সময় আমার মনে হয় শান্তিতে আছি। বই থেকে বের হয়ে পরিবার অব্দি তাও ঠিকঠাক। কিন্তু যেই একটু বাহিরের জগৎটাতে বিচরণ করতে যাই অদ্ভূদ সব মানুষ চারিপাশে। আপনার ক্ষতি করার জন্য হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এদের কেউকেউ আপনারই আপন আবার কেউবা আপনের ভান ধরেছে। অপরিচিত মানুষেরা কিন্তু হুট করে আপনার ক্ষতি করবেনা নেহায়ৎ চোর-ডাকাত না হলে। এই চরিত্রগুলিকে এবার বইবন্দি করার পালা। ঠিক করেছি যখনি এরা তাদের খেল দেখানো শুরূ করবে তখনি চুপচাপ তাদের খেল দেখতে দেখতে বইবন্দী করার কাজটা আরামসে করে নিবো। লে হালুয়া, তুই একাই খেল। আর আমি মজা মারি।’’

সোনালী/এমই

শর্টলিংকঃ