রাজশাহীতে ২৫টি হত্যাকান্ডের ঘটনা

04/01/2016 1:03 am0 commentsViews: 9

স্টাফ রিপোর্টার: ২০১৫ সাল শুরম্ন হয় সাধারণ মানুষের উপর হামলা ও  পুড়িয়ে হত্যার মধ্যে দিয়ে। প্রায় টানা তিনমাস বিএনপি ও জামাত শিবিরের ডাকা হরতাল, অবরোধ, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় রাজশাহীসহ দেশব্যাপী মানুষের জীবন দূর্বিসহ হয়ে উঠে। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গিয়ে হামলার শিকার হন র‌্যাব, পুলিশ ও বিজিবি। এতে করে কিছু পুলিশ সদস্য নিহত হন, কেউ কেউ আহত আবার আহত অনেক পুলিশ সদস্য পঙ্গুত্ব বরণ করেন।
এদিকে, ১ বছরে হত্যার ঘটনা ঘটে ২৫টি, আত্মহত্যা ৫২টি, ধর্ষন ও যৌন নির্যাতন ৭৩ টি এবং নির্যাতনের শিকার হয় ৮৫ জন নারী ও শিশু। এছাড়াও চুরি, ছিনতাই, অপহরণ, সড়ক দুর্ঘটনা সহ আরো ৫ শতাধিক ঘটনা রয়েছে। যা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ সূত্রে জানা যায়।
অপরদিকে বেসরকারী উন্নয়ন সংস’া লেডিস অর্গানাইজেশন ফর সোসাল ওয়েল ফেয়ার (লফস) সূত্রে জানায় গত ১ বছরে (২০১৫ সালে) জেলা ও মহানগরীতে আইন-শৃঙ্খলা পরিসি’তির চরম অবনতি ঘটে। জেলা ও মহানগরীতে জানুয়ারি হতে ডিসেম্বর পর্যনত্ম মোট নারী ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে ৫০৮ টি। এরমধ্যে নারী নির্যাতন ঘটনা ছিল ২২৩ টি ও শিশু নির্যাতনের ঘটনা ঘটে ২৮৫ টি।
সারা বছরে আলোচিত ঘটনার মধ্যে ছিল তানোর ব্রাক মোড়ে পেট্রোল বোমায় দগ্ধ হয় ৪ বছরের কন্যা শিশু আছিয়া খাতুন। গুড়িপাড়ায় জমজ সনত্মান জন্ম দেয়ায় এরিনা খাতুনকে পাশবিক নির্যাতন। মোহনপুরে ১২ বছরের সাকিবকে পিটিয়ে হত্যা, মোহনপুরে ৬ বছরের শিশু ধর্ষন। গোদাগাড়ী উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে শিশু (১৩) কে ধর্ষণ, পুঠিয়ায় গৃহবধু রেবেকাকে পিটিয়ে হত্যা, বাঘমারায় যৌন ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় স্বামী কর্তৃক পাশবিক নির্যাতন, চারঘাটে গৃহবধু রূপাকে কুপিয়ে হত্যা, পবায় ৬ বছরের শিশুকে বাবা কর্তৃক হত্যা, রামেক ডাক্তার কর্তৃক রোগীকে যৌন হয়রানি, তানোর ক্লিনিকে রোগী ধর্ষন, নগরীতে প্রেমিক যুগলের রহস্যজনক আত্মহত্যা সহ আরো শতাধিক ঘটনা রয়েছে। এরমধ্যে বোমা মেরে বিদ্যালয় উড়িয়ে দেয়ার হুমকি, ক্লাশ বন্ধ রাখতে প্রধান শিড়্গককে ‘লাল চিঠি’। সাংবাদিকের বিরম্নদ্ধে পুলিশ কর্তৃক একাধিক মিথ্যা মামলা ও হয়রানি। রাজশাহীতে নাশকতার ঘটনায় ২০ দলীয় জোটের আড়াইশ’ নেতাকর্মীর বিরম্নদ্ধে মামলা।
বছরটিতে অটোরিক্সায় যাত্রীবেশে চাকু ধরে ছিনতাই ও ছুরিকাঘাতের ঘটনা উদ্বেগজনকহারে বেড়ে যায়। ভদ্রার মোড়, রেলস্টেশন, শিরোইল, রেলগেট, বর্ণালীর মোড়, কাদিরগঞ্জ, ঘোষপাড়ার মোড়, সিমলা পার্ক, শিশুপার্ক কেন্দ্রীয় কারাগার সংলগ্ন নাককাটি মন্দিরের সামনে সহ বিভিন্নস’ানে এ ঘটনা ঘটছে। পুলিশি হয়রানীর ভয়ে বেশীরভাগ ভুক্তভোগীরা থানায় অভিযোগ করেননি। এছাড়াও রাজনৈতিক বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনায় কিছু সুবিধাভোগী পুলিশ গ্রেপ্তারবাণিজ্য জড়িয়ে পড়ে এবং ধর্তব্য ও অধর্তব্য আমলযোগ্য অপরাধ মামলায় তদনেত্ম দুর্বলতায় পার পেয়ে যায় অনেক আসামী বলেও অভিযোগ রয়েছে ।
উলেস্নখযোগ্য ঘটনার মধ্যে ছিল রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মায়ের কোলে যাওয়ার আগেই এক নবজাতক চুরি। এছাড়াও রাজশাহী কলেজের শিড়্গার্থী বহনকারী একটি বাসের সঙ্গে অপর একটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৩ জন নিহত ও অর্ধশতাধিক শিড়্গার্থী আহত। মতিহার থানাধীন হরিয়াণ বাজারে চারটি দোকানে দূর্ধষ ডাকাতি, মহানগরীতে অটোরিক্সা ও মোটরসাইকেল ছিনতাই, ছুরিকাঘাতে আহত, সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত, আহত ও দূর্বত্তের ছুরিকাঘাতে আহত পুলিশের সঙ্গে বিএনপির ব্যাপক সংঘর্ষ, ভাংচুর এবং ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

Tags:

Leave a Reply