গভীর রাতে রাবির আবাসিক হলে হাতবোমা বিস্ফোরণ-গুলি : আতঙ্ক

০৬/১২/২০১৫ ১:০৬ পূর্বাহ্ণ১ commentViews: 54

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : গভীর রাতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে চারটি হাতবোমা বিস্ফোরণ ও এক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদারবখ্‌শ হলের ভিতরে এই ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।
আবাসিক হলের অভ্যন্তরে বিকট শব্দে হাতবোমার বিস্ফোরণ ও গুলি ছোড়ার ঘটনায় পাশাপাশি অবসি’ত পাঁচটি আবাসিক হলের শিৰার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে কে বা কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা নিশ্চিত করতে পারেনি হলের দায়িত্বরত প্রহরী ও পুলিশ সদস্যরা।
হলের দুইজন প্রহরী জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ১০ মিনিটের ব্যবধানে বিকট শব্দে পরপর চারটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায় দুর্বৃত্তরা। একই সময়ে এক রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। হলের তৃতীয় বৱকের ছাদ, দ্বিতীয় বৱকের বারান্দা ও তৃতীয় তলার বারান্দা থেকে বিস্ফোরণ এবং গুলির শব্দ পাওয়া গেছে। এঘটনায় হলে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে শিৰার্থীরা কেউ নিজ কৰ থেকে বাইরে বের হন নি।
এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনার পরপরই হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বনি, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা ও শহীদ হবিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন ছাত্রলীগ নেতাকর্মী হলের তৃতীয় বৱকের বিভিন্ন কৰে তলৱাশি চালায় ও শিৰার্থীদের জিজ্ঞাসাবাদ শুর্ব করে।
মাদারবখশ হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম বনি বলেন, ‘হল প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে হলে আবাসিকতা ছাড়া কোনো দুষ্কৃতিকারী হলে থাকলে তাদের বের করে দেয়ার দাবি জানাবো।’  জানতে চাইলে হল প্রাধ্যৰ প্রফেসর তাজুল ইসলাম বলেন, ‘ প্রহরীদের কাছে বিষয়টি শুনে প্রক্টরকে জানিয়েছি। তিনি এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদৰেপ গ্রহণ করবেন।’ এ বিষয়ে কথা বলতে শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে গিয়ে তাকে পাওয়া যায়নি। মোবাইলে বারবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভি করেননি।

Tags:

Leave a Reply