বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) আসন্ন সমাবর্তনে উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক ও দেশবরেণ্য সাহিত্যিক সেলিনা হোসেনকে সম্মানসূচক ডক্টর অব লিটারেচার (ডি-লিট) ডিগ্রি দেওয়া হবে। বাংলা সাহিত্যে কৃতিত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ তাদেরকে এ ডিগ্রি দেওয়া হচ্ছে। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ১০ম সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য ও রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ আবদুল হামিদ তাদেরকে এ ডিগ্রি প্রদান করবেন। গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. প্রভাষ কুমার কর্মকার এ তথ্য জানিয়েছেন।
অধ্যাপক প্রভাষ কর্মকার জানান, হাসান আজিজুল হক ও সেলিনা হোসেন দুই জনই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিৰার্থী। এর মধ্যে হাসান আজিজুল হক বিশ্ববিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন শিৰকতাও করেছেন। বাংলা সাহিত্যে তাদের অবদান শুধু দেশে নয়, সারা বিশ্বে স্বীকৃত। দেশ-বিদেশে তারা বিভিন্ন পুরস্কার, পদক ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন এবং হচ্ছেন। তাদের অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপৰও ডি-লিট ডিগ্রি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর ১০ম সমাবর্তনে তাদেরকে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিগ্রি প্রদান করা হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, হাসান আজিজুল হক ১৯৬০ সালে রাবির দর্শন বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। ১৯৭৩ সালে তিনি দর্শন বিভাগে শিৰক হিসেবে যোগদান করেন। বর্তমানে তিনি অবসর জীবনযাপন করছেন। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অদূরে বিহাসে বসবাস করেন। হাসান আজিজুল হক ১৯৭০ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার এবং ১৯৯৯ সালে একুশে পদক লাভ করেন। ২০১২ সালে ভারতের আসাম বিশ্ববিদ্যালয় তাকে সম্মানসূচক ডি-লিট ডিগ্রি প্রদান করে। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে তিনি অসংখ্য পদক ও সম্মানে ভূষিত হয়েছেন।
অপরদিকে, আরেক বরেণ্য কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিৰার্থী ছিলেন। ১৯৬৭ সালে সেলিনা হোসেন স্নাতক এবং ১৯৬৮ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। সেলিনা হোসেন প্রথম নারী হিসেবে বাংলা একাডেমির পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি বাংলা একাডেমি পুরস্কার, একুশে পদক, স্বাধীনতা পদক, রবীন্দ্রস্মৃতি পদকসহ অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।