রামেক হাসপাতালে ডাক্তারের কা-!

১০/১০/২০১৫ ১:০৫ পূর্বাহ্ণ০ commentsViews: 73

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বর্হি:বিভাগে ডাক্তারের দুই পাশে দুই দালাল দাঁড়ানো। চিকিৎসা নিতে আসা র্বগীরা লাইন ধরে দাড়িয়ে আছে। ডাক্তার একজন করে র্বগী দেখা শেষে র্বগীর প্রেসকিপশন ও প্রয়োজনীয় পরীৰা-নিরীৰা দালালের হাতে তুলে দিয়ে র্বগীকে দালালের সঙ্গে যেতে বললেন। এমনটায় দেখা গেছে রামেক হাসপাতালের বর্হি:বিভাগের ডাঃ (ইএমও) রফিকুলের কৰে।
এছাড়াও আরো ১৫ থেকে ২০ জন নারী ও পুর্বষ দালালদের আউডডোরে দেখা গেছে। এরা র্বগী ধরে নিয়ে যায় হাসপাতালের বাইরে বিভিন্ন ডায়াগনিষ্টিক সেন্টারে। উপসি’ত পুলিশ, আনসার ও আউডডোর সংশিৱষ্ট সকলেই তাদেরকে চিনলেও কেউ মুখ খোলেন না। র্বগী প্রতি ৫০০ থেকে ১ হাজার টাকা কমিশন পান দালালরা। মাঝে মধ্যে লোক দেখানো দু’একটি দালাল ধরা পড়ে পুলিশের হাতে। তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়। কিন’ সামান্য সাজা খেটে জেল-হাজত থেকে বেরিয়ে পুনরায় শুর্ব করে দালালী।

এ ব্যাপারে হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল ইসলাম জানান, কারো বির্বদ্ধে নির্দিষ্ট প্রমান পেলে তাঁর বির্বদ্ধে অবশ্যই ব্যবস’া গ্রহণ করা হবে। এছাড়াও ইতিমধ্যে বেশ কিছু দালাল আটক করেছে পুলিশ। তবে বিষয়টি আরো গুর্বত্ব সহকারে দেখবেন বলে তিনি জানান।
এদিকে রামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্স ইনচার্জ (এএসআই) মুস্তাফিজুর জানান, ইতিমধ্যে বেশ কিছু দালাল আটক করে আদালতে চালান করা হয়েছে। তারা সাজা খেটে বেরিয়ে আবারো এ পেশায় জড়িয়ে পড়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশ সজাগ দৃষ্টি রাখবে বলে তিনি জানান।

Tags:

Leave a Reply