এফএনএস: একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেছেন, ড. কামাল হোসেন ও বদর্বদ্দোজা চৌধুরীরা কখনো আলোর পথ দেখেনি। তাই তারা এই জোট করেছেন। গতকাল সোমবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটি উপজেলা শাখার সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শাহরিয়ার কবির বলেন, ড. কামাল হোসেনের প্রণীত ৭২ সালের সংবিধান সামপ্রদায়িক জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিল। তিনি রাষ্ট্রের মালিক মনে করেন জনগণকে। আর বদর্বদ্দোজা চৌধুরীর আদর্শিক নেতা জিয়াউর রহমান জামায়াতকে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। এখন কামাল সাহেব আর বি চৌধুরী একসঙ্গে জোট করে কে কোনটি মানবেন? জিয়াউর রহমানের বিচার দাবি করে তিনি আরও বলেন, জিয়াউর রহমানের নির্দেশেই শেখ মুজিবকে হত্যা করা হয়েছে তাই জিয়াউর রহমানকেও বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় এক নাম্বার আসামি করা দরকার ছিল। পাশাপাশি ২১ আগস্ট শেখ হাসিনাকে হত্যা চেষ্টার কারণে খালেদা জিয়াকেও আসামি করার দরকার ছিল। কারণ তিনি তখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। এর দায় তিনি এড়াতে পারেন না। আশুগঞ্জ উপজেলা ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির আহ্বায়ক মোবারক আলী চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল, সহ-সাধারণ সম্পাদক ডা. নুজহাত জাহান চৌধুরী (শম্পা), জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. লিটন দেব, আশুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হাজী মো. ছফিউলৱাহ মিয়া, যুগ্ম আহ্বায়ক আবু নাছের আহমেদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মো. ইকবাল হোসাইন প্রমুখ।