এফএনএস: জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি লংঘন করায় বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ৰুণ্ন করায় ৬৩টি ওমরাহ যাত্রী প্রেরণকারী ট্রাভেল এজেন্সির বির্বদ্ধে আইনগত ব্যবস’া গ্রহণ করতে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করা হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ শাখার সিনিয়র সহকারী সচিব আবদুলৱাহ আরিফ মোহাম্মদ ২৩ সেপ্টেম্বর জারিকৃত নোটিশে আগামী সাতদিনের মধ্যে কারণ দর্শাতে বলা হয়।
৬৩টি ট্রাভেল এজেন্সির কাছে কারণ দর্শানোর পত্রে বলা হয়, নির্ধারিত ওমরাহ কোটা ৫শ’-এর অধিক যাত্রী প্রেরণ করায় কোন কোন প্রতিষ্ঠানের ১ থেকে ৪৮ জন পর্যন্ত ওমরাহ যাত্রী বাংলাদেশে ফেরত না আসার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওমরাহ এজেন্সির এহেন কার্যকলাপের জন্য বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি ৰুণ্ন হচ্ছে এবং ওমরাহ ব্যবস’াপনা কার্যক্রম দারণভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। তাই আগামি সাতদিনের মধ্যে ওমরাহ যাত্রী ফেরত না আসার কারণ ব্যাখ্যা না করলে আইনগত ব্যবস’া নেয়া হবে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বলাকা ট্রাভেল এ- টুরসের ৪৮ জন ওমরাহ যাত্রী দেশে ফিরে আসেনি বলে কারণ দর্শাও নোটিসে উলেৱখ করা হয়। এদিকে, পবিত্র হজ পালন শেষে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ৩২২টি ফিরতি হজ ফ্লাইটে ১ লাখ ১৩ হাজার ৪৩৭ জন হাজী দেশে ফিরেছেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইন্সের ১৫০টি ও সৌদি এয়ার লাইন্সের ১৭২টি বিমানে এসব হাজী বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করেন বলে হজ অফিস সূত্রে জানানো হয়।