স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আমরা সংস্কৃতিকে বাণিজ্যিকভাবে দেখবো না, ঐতিহ্যের সাথে মিলিয়ে দেখবো। চলচ্চিত্র শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে রাজশাহীতে একাধিক সিনেমা হল থাকবে। রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের উচিৎ অলকা সিনেমা হল তৈরি করা। চলচ্চিত্র শিল্প রৰায় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় প্রতিটি জেলায় ১টি করে ডিজিটাল সিনেমা হল করতে পারে।
নগরীর একমাত্র সিনেমা হল ‘উপহার’ বন্ধের প্রতিবাদে হলের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।
রাজশাহী চলচ্চিত্র সংসদসমূহ ও স্থানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন গতকাল সোমবার বিকেলে নগরীর নিউমার্কেট সংলগ্ন ‘উপহার’ সিনেমা হলটির সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
কর্মসূচি চলাকালে উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক বলেন, জীবন নিয়ে বাঁচা কোন বাঁচা নয়, সংস্কৃতির মধ্যে বাঁচাটায় প্রকৃত বাঁচা। রাজশাহীতে সংস্কৃতির সুবাতাস বইছে, পাল উড়াইয়া দাও। রাসিক মেয়র এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন ও সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার উদ্যোগে এখানকার সংস্কৃতি চর্চা এগিয়ে যাবে।
এসময় আরও বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিৰাবিদ র্বহুল আমিন প্রামানিক, ডা: এফএমএ জাহিদ, রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোমিন, রাজশাহী থিয়েটারের সভাপতি নিতাই কুমার সরকার, সাংস্কৃতিক কর্মী ও সাংবাদিক জাবিদ অপু প্রমুখ। রাজশাহী চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি আহসান কবির লিটনের সঞ্চালনায় এসময় ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটিসহ স্থানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন এতে অংশ নেয়।সংস্কৃতিকে বাণিজ্যিকভাবে দেখবো না,
ঐতিহ্যের সাথে মিলিয়ে দেখবো
স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, আমরা সংস্কৃতিকে বাণিজ্যিকভাবে দেখবো না, ঐতিহ্যের সাথে মিলিয়ে দেখবো। চলচ্চিত্র শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে রাজশাহীতে একাধিক সিনেমা হল থাকবে। রাজশাহী অ্যাসোসিয়েশনের উচিৎ অলকা সিনেমা হল তৈরি করা। চলচ্চিত্র শিল্প রৰায় সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় প্রতিটি জেলায় ১টি করে ডিজিটাল সিনেমা হল করতে পারে।
নগরীর একমাত্র সিনেমা হল ‘উপহার’ বন্ধের প্রতিবাদে হলের সামনে অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।
রাজশাহী চলচ্চিত্র সংসদসমূহ ও স্থানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন গতকাল সোমবার বিকেলে নগরীর নিউমার্কেট সংলগ্ন ‘উপহার’ সিনেমা হলটির সামনে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
কর্মসূচি চলাকালে উপমহাদেশের প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হক বলেন, জীবন নিয়ে বাঁচা কোন বাঁচা নয়, সংস্কৃতির মধ্যে বাঁচাটায় প্রকৃত বাঁচা। রাজশাহীতে সংস্কৃতির সুবাতাস বইছে, পাল উড়াইয়া দাও। রাসিক মেয়র এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন ও সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশার উদ্যোগে এখানকার সংস্কৃতি চর্চা এগিয়ে যাবে।
এসময় আরও বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিৰাবিদ র্বহুল আমিন প্রামানিক, ডা: এফএমএ জাহিদ, রাজশাহী মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের ১৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোমিন, রাজশাহী থিয়েটারের সভাপতি নিতাই কুমার সরকার, সাংস্কৃতিক কর্মী ও সাংবাদিক জাবিদ অপু প্রমুখ। রাজশাহী চলচ্চিত্র সংসদের সভাপতি আহসান কবির লিটনের সঞ্চালনায় এসময় ঋত্বিক ঘটক ফিল্ম সোসাইটিসহ স্থানীয় বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন এতে অংশ নেয়।