স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক ও চন্দ্রপ্রভা বিদ্যাপীঠের প্রাক্তন ছাত্র মাহাবুবুল হক হানিফ এমপি বলেছেন, আমাদের রাজনীতির লৰ্য হতে হবে জনগণের কল্যাণ করা। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় নগরীর শ্রীরামপুরস্থ কর্মচারী কল্যাণ বোর্ড মিলনায়তনে পাকশীর চন্দ্রপ্রভা বিদ্যাপীঠের রাজশাহীস্থ প্রাক্তন ছাত্র কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে আয়োজিত পুনর্মিলনী ও সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এমপি হানিফ বলেন, আমার শ্রেষ্ঠ সময় কেটেছে পাকশীর চন্দ্রপ্রভা বিদ্যাপীঠে। আমাদের সব থেকে অনুভূতির স্থান হচ্ছে এই বিদ্যালয়টি। প্রত্যেক মানুষের জন্য এই সময়টি স্বর্ণকাল। তাই প্রতিটি মুহূর্তে এই স্কুলটিকে আমার মনে পড়ে, আপনাদের পাশে থেকে এই বিদ্যালয়ের উন্নয়নে আমি ভূমিকা রাখবো। আর বিদ্যাপীঠটি আরো গৌরবের এই কারণে যে বঙ্গবন্ধুর ডাকে এই বিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ শিৰার্থী মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। আর আমাদের স্বপ্ন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলা। কিন্তু বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর মুক্তিযুদ্ধের সেই আকাঙৰাকে নস্যাৎ করে দেয়া হয়েছিল। তাই যারা গণতন্ত্রের নামে বোমা মেরে জনগণকে হত্যা করে এটা কোন গণতান্ত্রিক অধিকার হতে পারে না। বাংলাদেশ স্বাধীন করা হয়েছিল শান্তির বাংলাদেশ করার জন্য বোমা মারার জন্য নয়।
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাসিকের নবনির্বাচিত মেয়র মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এএইচএম খায়র্বজ্জামান লিটন বলেন, মানুষ শৈশবকালে যেখানে লেখা-পড়া করেন সেটা তার কাছে স্মৃতি হয়ে থাকে। মেধাকে শাণিত করার স্থান হচ্ছে বিদ্যালয়, নিজেকে গড়ে তোলার প্রধান কেন্দ্র। সেখানে যে যত শিখবে সে ততই অর্জন করতে পারবে। সেই ব্যক্তিই জ্ঞানীগুণী হবে। তাই চন্দ্রপ্রভা বিদ্যালয়ের অনেকেই জ্ঞানী-গুণী হয়েছেন। সেখানকার ছাত্র-ছাত্রীরা সেটিকে এখন স্মৃতিতে ধারণ করে বেঁচে আছেন।
চন্দ্রপ্রভা বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কিডনী বিভাগের প্রধান একেএম মনোয়ার্বল ইসলামের সভাপতিত্বে সম্মাননা অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান। আরো বক্তব্য রাখেন রাজশাহী পশ্চিম রেলের জেনারেল ম্যানেজার চন্দ্রপ্রভা স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র মজিবর রহমান ও পশ্চিম রেলের প্রধান প্রকৌশলী রমজান আলী, রবিউল আলম বুদু, মাহফুজুর ইসলাম (রঞ্জু) ও কাজী সদর্বল ইসলাম সুদা প্রমুখ।
অনুষ্ঠান চলাকালীন সম্মাননা অতিথি রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার ও চন্দ্রাপ্রভা বিদ্যাপিঠের প্রাক্তন ছাত্র নূর-উর- রহমানকে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়।