চারঘাট প্রতিনিধি: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি সম্পর্কে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বানেশ্বর সরকারি কলেজের অধ্যৰ একরামুল হক আপত্তিকর বক্তব্য দেয়ার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগ। সংবাদ সম্মেলন থেকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধে অভিযুক্ত আ’লীগ নেতা একরামুলের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়। শুক্রবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তারা এ দাবি জানান।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন সংবাদ সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, চলতি মাসের ১ অক্টোবর রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার বানেশ্বর কাচারি মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভায় পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও চারঘাট-বাঘার সংসদ সদস্য শাহরিয়ার আলমের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে আপত্তিকর বক্তব্য উপস্থাপন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও বানেশ্বর সরকারি কলেজের অধ্যৰ একরামুল হক। সেই বক্তব্যে একরামুল হক বলেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম ষড়যন্ত্র করছেন এবং উষ্কানি দিয়ে পুঠিয়া-দুর্গাপুর আসনে এমপি দারা’র বিরুদ্ধে প্রার্থী দাড় করানোর পাঁয়তারা করছেন। অধ্যৰ একরামুল হক ওই মঞ্চে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমকে হুঁশিয়ারি দিয়েও বক্তব্য দেন। এসময় একই মঞ্চে উপস্থিত পুঠিয়া-দুর্গাপুর আসনের সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা অধ্যৰ একরামুলের বক্তব্যের তিব্র প্রতিবাদ করে বক্তব্য দেন। একই মঞ্চে পুঠিয়া-দুর্গাপুর আসনের সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দ্বারা একরামুলের বক্তব্যের প্রতিবাদ করায় এটা প্রমাণ করে, একরামুল হক মিথ্যা, বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিয়ে ব্যক্তিগত আক্রোশ থেকে সরকারের গুরুত্বপুর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের বিরুদ্ধে এহেন আপত্তিকর বক্তব্য দিয়েছেন। তার এই বক্তব্যের প্রতিবাদে চারঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে তিব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জ্ঞাপন করে। একই সাথে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধে একরামুলের কঠোর শাস্তির দাবি জানান।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জোনাব আলী, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, ছাত্রলীগের সভাপতি আলমামুন তুষার, সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল হক রানা প্রমুখ।