রামেক হাসপাতালে হঠাৎ করে বেড়েছে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা

11/08/2018 1:06 am0 commentsViews: 5

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হঠাৎ করেই কলেরা ও ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। গত তিনদিনে প্রায় ৪ শতাধিক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। ডাক্তারের ধারণা, অসহনীয় গরম ও খাবার সচেতনতার অভাবে মানুষ এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। তবে এ রোগে কোন মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।
রামেক হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার ১দিনে প্রায় ২ শতাধিক ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী হাসপাতালের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছেন। গত বুধবার থেকে গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত ডায়রিয়া ও কলেরা রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রায় ৪ শতাধিক রোগী ভর্তি হয়েছেন। ওয়ার্ডে জায়গা না থাকায় ভর্তিকৃত রোগীদের ১৩, ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ৩৬ ও ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের করিডোরে রাখা হয়েছে। তবে হাসপাতালে যেমন নতুন রোগী ভর্তি হচ্ছেন, অনেকে আবার সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরেছেন।
এ ব্যাপারে মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. খলিলুর রহমান বলেন, সারা বছরেই একটা উলেৱখযোগ্য সংখ্যায় ডায়রিয়ায় মানুষ আক্রান্ত থাকে। তবে গত কয়েকদিনে অসহনীয় গরমে এবং খাবার সচেতনতার কারণে হয়ত মানুষ ডায়রিয়া ও কলেরাই আক্রান্ত হচ্ছেন। তিনি বলেন, মানুষ রাস্তাঘাটের অসংরৰিত খাবার খায়। অনেক সময় অতিরিক্ত গরমে বাড়ির খাবার নষ্ট হয়ে যায়। সেই খাবার খেয়ে মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়। এছাড়াও রাজশাহীতে সাপৱাই পানির অবস্থা আগের মতোই রয়েছে কোন পরিবর্তন হয়নি। এ কারণেও মানুষ ডায়রিয়া ও কলেরায় আক্রান্ত হচ্ছেন।
এদিকে রাজশাহী জেলা সিভিল সার্জন সঞ্জিব কুমার বলেন, বর্তমানে জেলায় ডায়রিয়া জনিত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। আমাদের কাছে পর্যাপ্ত ওষুধ রয়েছে এবং চিকিৎসক টিমও রেডি রয়েছেন।

Leave a Reply