রাজশাহী রেশম কারখানা পরিদর্শনে সংসদীয় কমিটি

11/08/2018 1:09 am0 commentsViews: 81

স্টাফ রিপোর্টার: বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যরা রাজশাহী রেশম কারখানার বর্তমান কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন।
গতকাল শুক্রবার দুপুরে কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি’র নেতৃত্বে সদস্যরা কারখানাটি পরিদর্শনে যান। এ সময় রেশম বোর্ডের পরিচালনা পর্ষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি ফজলে হোসেন বাদশা এমপি তাদের সাথে ছিলেন।
তারা রেশম কারখানায় পরীৰামূলকভাবে চালু হওয়া ৫টি পাওয়ার লুমের বিভিন্ন পর্যায় ঘুরে ঘুরে দেখেন। তারা বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ড থেকে উৎপাদিত সুতা দিয়ে কারখানায় তৈরি করা খাঁটি রেশম কাপড় এবং রেশম কারখানার বর্তমান কার্যক্রম সম্পর্কে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। উচ্ছ্বসিত হন কারখানায় তৈরি গরদের কাপড় ও সুপার বলাকা দেখে।
কারখানা পরিদর্শনকালে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, রেশম শিল্পের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এর সুষ্ঠু সমন্বয়, পরিকল্পনা ও তদারকি প্রয়োজন। রেশম বোর্ড এবং রেশম গবেষণা ও প্রশিৰণ ইনস্টিটিউট একত্রে হলেও সমন্বয়ের জন্য দ্র্বত সাংগঠনিক কাঠামো অনুমোদন হওয়া প্রয়োজন।
এছাড়া ২০২১ সালের মধ্যে রেশমের উৎপাদন ১০০ মেট্রিক টনে উন্নীত করার টার্গেট নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিৱষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন সাবের হোসেন চৌধুরী। তিনি বলেন, পাট ও রেশমের সমন্বয়ে নতুন কোনো পণ্য তৈরি করা যায় কি না সে বিষয়ে বিশেষজ্ঞদের গবেষণা করতে হবে। সরকারের ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নের জন্য তুঁতপাতা ও রেশম কীট আরও উন্নত করতে হবে।
এ সময় রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বলেন, রাজশাহীর গর্বের এই প্রতিষ্ঠানটিকে লোকসানের অজুহাতে বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার বন্ধ করে দিয়েছিল। কিন্তু সঠিক পরিকল্পনা থাকলে কারখানাটিকে লাভজনক প্রতিষ্ঠানে রূপ দেওয়া যেত। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই কারখানাটি চালুর চেষ্টা করে যাচ্ছেন। তিনি আবার রেশমের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে চান।
সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ডা. এনামুর রহমান, সাবিনা আক্তার তুহিন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী, বস্ত্র অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইসমাইল, তাঁত বোর্ডের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply